২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭ আশ্বিন ১৪২৮, ১৪ সফর ১৪৪৩ হিজরি
`
উত্তাল সাগর

দাদনের ঋণ নিয়ে দুশ্চিন্তায় জেলেরা

-

উপকূলের বৃহত্তম মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে বসে অপেক্ষার প্রহর গুনছেন জেলেরা। আর ঘাটে বসেই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে মাছ শিকারের জন্য কেনা বরফ ও বাজার-সদাই। অপর দিকে নিষেধাজ্ঞার সময়ে পরিবার-পরিজনের ভরণ-পোষণে অনেক জেলেই মহাজনদের কাছ থেকে দাদন নিয়ে ঋণগ্রস্ত। এখন পর্যন্ত সাগর উত্তাল থাকায় মাছ ধরতে যেতে পারেনি। এমন পরিস্থিতিতে জেলেরা বলছেন, এ সময়ে নদ-নদীতে ও সাগরে ইলিশ ধরতে না পারায় তারা চরম হতাশ।
ট্রলার মালিক মাসুম মিয়া বলেন, বরফসহ প্রায় দুই লাখ টাকার বাজার-সদাই দিয়ে সাগরের উদ্দেশে রওনা দিয়েছি কিন্তু ঘাট থেকেই এখন পর্যন্ত জেলেরা যেতে পারেনি। এমন অবস্থায় ঘাটে বসেই বাজার-সদাই শেষ হয়ে যাচ্ছে, বরফও নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এমন অবস্থায় লাভের মুখ তো দেখবই না বরং লোকসানের ঘানি টানতে টানতে দিন পার হয়ে যাবে। বাকিতে বাজারের টাকা এবং দাদনের টাকা সময়মতোই পরিশোধ করতে হবে।
জাহাঙ্গীর হোসেন মাঝি বলেন, ৬৫ দিন মাছ ধরায় নিষেধ থাকে। এ সময় পরিবার-পরিজন নিয়ে অতিকষ্টে দিন কাটিয়েছি। মাটির কাজ করে সংসার চালিয়েছি। ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষে বুকভরা আশা নিয়ে সাগর উদ্দেশে রওনা দিলেও ঘাটে বসে বাজার-সদাই খেয়ে দিন পার করছি। মোগো গুরাগারা লইয়া খামু কী আর দাদনের টাহাই বা কেমনে দিমু? এ বিষয়ে বরগুনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার দেব বলেন, মৌসুমে সাগর থেকে ইলিশ নদ-নদীতে বিচরণ করতে আসে। এ সময় প্রায় সব খানেই ইলিশ ধরা পড়ে। আমরা আশা করি, শিগগিরই নদী ও সাগরে ইলিশ ধরা পড়তে শুরু করবে।



আরো সংবাদ


খেলাপিদের বিশেষ সুবিধা আরো এক বছর চায় বিজিএমইএ মুস্তাফিজদের দারুণ বোলিংয়ে রোমাঞ্চকর লড়াই জিতল রাজস্থান সাবমেরিন ইস্যু : ‘ক্রুদ্ধ’ ম্যাক্রঁ কি বেশি ঝুঁকি নিয়ে ফেললেন? গাড়িচালক মালেকের বিরুদ্ধে চার্জশিট অনুমোদন দুদকের আফগানিস্তানে আইপিএলের সম্প্রচার নিষিদ্ধ হার এড়ালো বার্সেলোনা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় নিজেকে নির্দোষ দাবি সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর স্বাস্থ্যের ২৮৩৯ পদে নিয়োগপ্রক্রিয়া বাতিল দুয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হয়েছে : ওবায়দুল কাদের মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা শিথিল খালেদা জিয়ার মুক্তি ইস্যুতে আপস করা যাবে না: বিএনপি

সকল