০৮ মার্চ ২০২১
`

নান্দাইলে অবৈধ ইটভাটার ছড়াছড়ি ধোঁয়ায় বিপন্ন পরিবেশ

-

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় অবৈধ ইটভাটার ছড়াছড়ি। পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র ছাড়াই বছরের পর বছর ধরে এসব ইটভাটা চালিয়ে আসছে ভাটামালিকরা। ঝিকঝাক চিমনি ছাড়াই ক্ষতিকর চিমনি দিয়ে ভাটা চালানো হচ্ছে। কৃষিজমি রক্ষার্থে ইটভাটা স্থাপনে আইন করে জায়গা সীমাবদ্ধ করে দেয়া হলেও নান্দাইলে লোকালয় ও ফসলি জমিতে যত্রতত্র গড়ে উঠেছে ইটভাটা। উর্বর জমিতে ইটভাটা তৈরির ফলে উপজেলার সামগ্রিক কৃষি উৎপাদনের ওপর বিরূপ প্রতিক্রিয়া পড়ছে বলে কৃষি বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। তাদের মতে, বেশির ভাগ ইটভাটার আশপাশের কৃষিজমির উপরিস্তরের মাটি কেটে ইট তৈরি করা হয় বলে জমির উর্বরতা নষ্ট হচ্ছে। কিন্তু নান্দাইল উপজেলায় ইটভাটার মালিকরা বছরের পর বছর পরিবেশ অধিদফতরের কেনো ছাড়পত্র ছাড়াই অদৃশ্য শক্তির বলে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে ইটভাটা চালিয়ে আসছে। এ ছাড়া ঝিকঝাক চিমনি ব্যবহার না করে পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর চিমনি ব্যবহার করায় ইটভাটা থেকে নির্গত কার্বন ডাই-অক্সাইড ও সালফার ডাই-অক্সাইড মিশ্রিত ধোঁয়া বাতাসে মিশে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি করছে বলে পরিবেশবাদীরা দাবি করেন। নান্দাইল উপজেলা নির্বাহী কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, এবার উপজেলায় ২০টি ইটভাটা চালু রয়েছে।
ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিবেশ অধিদফতর অফিস সূত্রে জানা গেছে, নান্দাইল উপজেলার মাত্র দু’টি ইটভাটার ছাড়পত্র রয়েছে। বাকি ভাটাগুলো পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র ছাড়াই চালানো হচ্ছে। এক অদৃশ্য কারণে স্থানীয় প্রশাসনকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে দেখা যায় না, যা নিয়ে জনমনে মিশ্র প্রতিক্রিয়া রয়েছে। ইট পোড়ানো আইনে কোনো ইটভাটায় এক মৌসুমে সর্বোচ্চ চার লাখ ইট পোড়ানোর অনুমোদন থাকলেও নান্দাইলের ভাটাগুলোতে ২০ থেকে ৪০ লাখ ইট পোড়ানো হয় বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। ফলে সরকার লাখ লাখ টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, প্রতি মৌসুমে অর্থাৎ নভেম্বর থেকে মে মাস পর্ষন্ত ছয় মাসে একটি ইটভাটায় ৩০ লাখ ইট পোড়ানোর জন্য দেড় হাজার টন কাঠ জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয়।
১৯৯০ সালের ২৫ জুলাই ভূমি মন্ত্রণালয় জারিকৃত এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, প্রত্যেক জেলা প্রশাসন ইটভাটা নির্মাণের আবেদনের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট এলাকা পরিদর্শন করে অনুর্বর অকৃষিজমিতে ইটভাটা নির্মাণের অনুমোদন দেবেন। যত্রতত্র ইটভাটা না হয়ে ইটভাটা হবে নদীর তীর অথবা বিশেষ কোনো এলাকার সর্বোচ্চ দেড় একর জায়গার ওপর। ১৯৮৯ সালের ১ জুলাই থেকে কার্ষকর হওয়া ইট পোড়ানো নিয়ন্ত্রণ আইনানুযায়ী ইট পোড়ানোর জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার জেলা প্রশাসক বরাবর দরখাস্ত পেশ করে লাইসেন্স নিতে হবে। লাইসেন্স ছাড়া কেউ ইট পোড়াতে পারবে না।
একটি ইটভাটার গল্প : গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার ১০টি ইটভাটা ড্রাম চিমনি দিয়ে ইট পুড়ছে। নিগুয়ারী ইউনিয়নে মাখল ইটভাটাকে ঘিরে রয়েছে অভিযোগের পাহাড়। ইটভাটার মালিক মোজাম্মেল হক ইটভাটার ছাড়পত্র ছাড়াই ড্রাম চিমনি দিয়ে ইট পুড়ছে। এ ইটভাটাকে ঘেঁষে তিন দিকে ঘনবসতিপূর্ণ বাড়ি ও আবাসিক এলাকায় ইটভাটা স্থাপিত হওয়ায় কালো ধোঁয়ার প্রভাবে এলাকার আশপাশের বসতবাড়ির মানুষের জনস্থাস্থ্য এবং পরিবেশ দূষিত হচ্ছে।
নান্দাইলে ইটভাটার মালিকরা সহজ-সরল কৃষকদের বুঝিয়ে অর্থের লোভ দেখিয়ে ও ফুসলিয়েফাসলিয়ে ফসলি জমি থেকে মাটি নিতে রাজি করিয়ে থাকে। এ ছাড়া ইটভাটা মালিকরা প্রভাবশালী হওয়ায় এ অনিয়মের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে নারাজ।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে অরন্যপাশা গ্রামের এক বাসিন্দা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, চন্ডিপাশা, গাঙ্গাইল মুশুলি ইউনিয়নের কয়েকটি অবৈধ ইটভাটা থাকার কারণে এলাকার ফসলি জমি ব্যাপক হারে নষ্ট হচ্ছে। সাথে সাথে স্থাীয়ভাবে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি সাধন হচ্ছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এরশাদ উদ্দীনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, তার অফিসে এ-সংক্রান্ত অভিযোগ জমা পড়েছে। তিনি সেগুলো পরিবেশ অধিদফতরের জেলা অফিসে পাঠিয়ে দিয়েছেন।



আরো সংবাদ


৩ দিনের সফরে মংলায় এসেছে ভারতের যুদ্ধজাহাজ নোয়াখালীতে সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যায় গ্রেফতার বেলাল ৩ দিনের রিমান্ডে নোয়াখালীতে ২৮ কোটি টাকার ঋণখেলাপির মামলায় প্রাবসী কারাগারে আড়াইহাজারে ধর্ষণের অভিযোগে প্রেমিক গ্রেফতার মির্জাগঞ্জে সেই প্রতিবন্ধী রোজীনা পেলেন জয়িতা পুরস্কার অধিকার আদায়ে নারীদের যোগ্যতা অর্জনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর প্রথমবার জাতিসঙ্ঘে শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন বাংলাদেশী ৪ নারী বিচারক অনৈতিক সম্পর্ক দেখে ফেলায় যুবককে খুন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় হাসপাতাল নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়নি : আইনমন্ত্রী পথশিশুদের জন্য আহমদ শফির ভ্রাম্যমাণ মাদরাসা নিবন্ধনধারীদের এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগের নির্দেশ

সকল