০১ ডিসেম্বর ২০২০

বেতাগীতে ঝুঁকিপূর্ণ সেতুতে পারাপার : দুর্ঘটনার শঙ্কা

-

বরগুনার বেতাগীতে সেতুর বেহাল দশার কারণে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন এলাকাবাসী। উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নের জলিশাবাজার-আমড়াগাছিয়ার সংযোগস্থলে হোসনাবাদ আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পাশের বেড়েরধন নদীর সেতুটি দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। সেতুর পাটাতন ধসে যাওয়ায় এটি মারণ ফাঁদে রূপ নিয়েছে।
সরেজমিন দেখা যায়, সেতুর দু’পাশ থেকে ভেঙে যাওয়ায় উপরের সিমেন্টের তৈরি পাটাতন অনেকটা ধসে পড়েছে। মোটরবাইক, ইজিবাইক, অটো, টেম্পো ও অটোরিকশা চলাচলও বন্ধ হয়ে গেছে। অনেকে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হওয়ায় দুর্ঘটনারও শিকার হচ্ছেন। সূত্র জানায়, এক বছর আগে সেতুর উপরের পাটাতন ধসে পড়ার পরও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কোনো উদ্যোগ না থাকায় স্থানীয় সমাজসেবক আবদুর রউফ নিজ অর্থায়নে কাঠ দিয়ে সাময়িকভাবে এটি সংস্কার করেন। বর্তমানে সেই কাঠের পাটাতনও ভেঙে পড়ায় সেতু পার হওয়ার সময় বড় দুর্ঘটনার শঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।
স্থানীয় একাধিক অভিভাবক জানান, প্রতিদিন বয়সে ছোট ও বয়স্ক লোকদের ঝুঁকি নিয়ে সেতুটি পার হতে হচ্ছে। অনেক সময় দুর্ঘটনারও শিকার হচ্ছেন তাদের অনেকে। স্থানীয়রা জরুরি ভিত্তিতে সেতুটি সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
জলিশা বাজারের ফল ব্যবসায়ী জসিম জানান, ভাঙা ও মরিচা ধরা ঝুলে পড়া লোহার এঙ্গেলের উপর সেতুটি ঝুলে আছে। অপর বাসিন্দা আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, সেতুটি ৯০ এর দশকে নির্মাণ করা হলেও এখন সংস্কার খুবই জরুরি হয়ে পড়েছে।
হোসনাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান খান বলেন, বেশ কয়েকটি প্রকল্পে ইতোমধ্যে সেতুটির কথা বলা হয়েছে। অল্পসময়ের মধ্যেই দরপত্র আহ্বান করা হবে। বেতাগী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান ফোরকান বলেন, বেতাগীর এই সেতুটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অচিরেই এ সমস্যা সমাধান করা হবে।


আরো সংবাদ