২৭ অক্টোবর ২০২০

দেবিদ্বারে বায়োমেট্টিক পদ্ধতিতে ওএমএসের চাল বিতরণ

-

কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলায় প্রথমবারের মতো বায়োমেট্টিক পদ্ধতিতে (আঙুলের ছাপ দিয়ে) ওএমএসের চাল বিতরণ শুরু হয়েছে। ধামতী ইউনিয়নের ধামতী গ্রামে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়। সরকারি চাল বিতরণে অনিয়ম রুখতে প্রথমবারের মতো দেবিদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাকিব হাসান একটি ওয়েব সাইটের মাধ্যমে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছেন বলে জানা গেছে।
ধামতি ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার পাশে শুরু হওয়া এ কার্যক্রমে দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন, ইউএনও রাকিব হাসান ও ধামতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন মিঠু উপস্থিত ছিলেন।
ইউএনও রাকিব হাসান বলেন, হতদরিদ্র অনেকের নামে কার্ড করা হয়েছে অথচ তারা জানেনই না তাদের নামে বছরের পর বছর চাল উত্তোলন হচ্ছে। ক্রমাগতভাবে যখন অভিযোগগুলো আসছিল, তখন চিন্তা করলাম প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কাছে সঠিকভাবে চাল পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করা যায় কি না। তিনি আরো বলেন, ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কারা চাল উত্তোলন করেছেন, কারা করেননি, তার তথ্য জানা যাবে। ফলে চাল বিতরণে ফাঁকি দেয়ার সুযোগ নেই।
তিনি আরো বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকারি চাল বিতরণে অনিয়ম হচ্ছে এটি পুরানো বিষয়। করোনার সময় এর ব্যাপকতা আরো বেড়েছে। এ অনিয়মটি চিরতরে বন্ধ করার চেষ্টা করছি। মূলত এ ব্যবস্থাটি তৈরির জন্য ডিলার ও উপকারভোগীদের প্রশিক্ষণ দিয়েছি। ধীরে ধীরে সব ক’টি ইউনিয়নে ব্যবস্থাটি চালু করা হবে। পুরো উপজেলার সবাইকে এর আওতায় আনা হবে।
কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো: আবুল ফজল মীর বলেন, ওএমএসের চাল বিতরণে অনিয়ম ঠেকাতে এটি একটি কার্যকর পদ্ধতি। একই পদ্ধতিতে সরকারের অন্যান্য সেবাও দেয়ার চেষ্টা করছি।


আরো সংবাদ