২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

অপছন্দের পাত্রের সাথে বিয়ের দু’দিন পর লাশ হলো স্বপ্না

-

বিয়ের দু’দিন না যেতেই ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার ঘারুয়া ইউনিয়নের রাজেশ^রদী গ্রামে মামার বাড়ি থেকে এক নববধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতে পাশর্^বর্তী মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলা হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নববধূ স্বপ্না আক্তারকে (১৯) মৃত ঘোষণা করেন। অপছন্দের পাত্রের সাথে বিয়ে হওয়ায় অভিমানে সে ঘরের আড়ার সাথে গলার ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে বলে ধারণা করছে পুলিশ।
কয়েক বছর আগে মা মিলি বেগমের সাথে বাবা নাসির শেখের ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর রাজেশ^রদী গ্রামে মামা বাশার হাওরাদারের বাড়িতে থাকত স্বপ্না। গত বুধবার মামার পরিবারের পছন্দে গোপালগঞ্জ জেলার মোকসেদপুর উপজেলার বিশ^ম্বর্দী গ্রামের সাগর (২৮) নামে এক পাত্রের সাথে তার বিয়ে হয়।
রাজেশ^রদী গ্রামের বাসিন্দা দিন মোহাম্মদ জানান, স্বপ্নার অমতে এ বিয়ে হয়। সেজন্য সে বিয়ের পরদিন বৃহস্পতিবার স্বামীর বাড়ি থেকে চলে আসে। এরপর তাকে স্বামীর বাড়ি যেতে মামা বাড়ি থেকে চাপ দেয়া হচ্ছিল। এ ব্যাপারে স্বপ্নার মামার পরিবারের বক্তব্য জানা যায়নি।
ভাঙ্গা থানার ওসি শফিকুর রহমান বলেন, পরিবারের ভাষ্যমতে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে। সুরতহাল রিপোর্টে আঘাতের চিহ্ন ছিল না বলে রাজৈর থানা পুলিশ জানিয়েছে। এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে পরবর্র্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 


আরো সংবাদ