৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

পানিতে ডুবে মা-ছেলেসহ ৭ জনের মৃত্যু

-

বগুড়ার আদমদীঘিতে মঙ্গলবারে ঈদের নিমন্ত্রণে যাওয়ার পথে নৌকা ডুবে মা-ছেলের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন আদমদীঘি উপজেলার সান্দিরা গ্রামের শহীদ হোসেনের স্ত্রী চাঁদনী বেগম (৩০) ও তার ছেলে সাদ (৭)। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তারা নৌকায় রক্তদহ বিল পার হওয়ার জন্য সান্দিরা ঘাটে নৌকায় ওঠেন। বিলের মাঝামাঝি নৌকার তলা ফেটে নৌকা ডুবে যায়। এ সময় অন্য যাত্রীরা সাঁতার কেটে তীরে উঠলেও মা-ছেলে বিলের পানিতে ডুবে যান। পরে অন্য একটি নৌকার সাহায্যে স্থানীয় লোকজন মা-ছেলেকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
পটিয়া-চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, পটিয়া উপজেলায় বড়লিয়া ইউনিয়নের সৈয়দ বাড়িতে ঈদুল আজহার দিন সকালে শিশু আহনাফ মোরশেদ সাদি (৩) পুকুরে ডুবে মারা গেছে। মৃত শিশু সাদি দক্ষিণ জেলা বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার সাবেক সভাপতি এবং পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রকৌশলী মোরশেদ উল্লাহর দুই ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে ছিল সবার ছোট।
টাঙ্গাইল সংবাদদাতা জানান, কালিহাতীতে বন্যার পানিতে ডুবে খুশি আক্তার (৪) ও আবির হোসেন (৩) নামে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপজেলার গিলাবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খুশি ওই গ্রামের ট্রাকচালক লাভলু তরফদারের মেয়ে এবং আবির টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বেতবাড়ী গ্রামের এনজিও কর্মী আবু বকর সিদ্দিকের ছেলে। সে খুশির মামাতো ভাই।
মিরসরাই (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, উপজেলার তেতৈয়া এলাকায় পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ওই এলাকার সিদ্দিকুর রহমান মাস্টার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। তাসফিয়া তাবাচ্ছুম (৬) ও তাসফীন আক্তার মারিয়া (৬) নামের মৃত দুই শিশু সম্পর্কে চাচাতো বোন। তারা ওই বাড়ির শাহজাহান খানসাব ও মোশারফ হোসেন সুমন প্রকাশ হোরামিয়ার কন্যা।
পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, গত দুই দিনে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার কন্দরপদী গ্রামে বৃষ্টির পানি জমে থাকা গর্তে পড়ে এবং চণ্ডিপাশা সামুর দোকানসংলগ্ন ফিশারির পানিতে ডুবে ওই দুই শিশু মারা যায়। তারা হলো উপজেলার বুরুদিয়া ইউনিয়নের কন্দরপদী গ্রামের প্রবাসী কাজল মিয়ার ছেলে লামিম (৫) ও চণ্ডিপাশা ইউনিয়নের চণ্ডিপাশা আবির হাজী বাড়ির ফারুক মিয়ার ছেলে মারুফ (৭)। ঈদের পরদিন রোববার দুপুর ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বাড়ির লোকজনের অজান্তে বৃষ্টির পানি জমে থাকা গর্তে পড়ে যায় কন্দরপদী গ্রামের শিশু লামিম। সে ওই গ্রামের প্রবাসী কাজল মিয়ার একমাত্র সন্তান।
এ দিকে সোমবার দুপুরে বন্ধুদের সাথে বাড়ির পাশের ফিশারিতে খেলতে নেমে সাঁতার কাটা ও লাফালাফি করতে গিয়ে পানিতে ডুবে মারুফ নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়। সে চণ্ডিপাশা আবির হাজী বাড়ির ফারুক মিয়ার ছেলে।


আরো সংবাদ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত মন্ত্রণালয়ের (১২৯৪২)ড. কামাল ও আসিফ নজরুল ঢাবি এলাকায় অবা‌ঞ্ছিত : সন‌জিত (১১৭২৬)‘সনজিতকে ক্যাম্পাসে দেখতে চায় না ঢাবি শিক্ষার্থীরা’ (১০৩২০)এমসি কলেজে গণধর্ষণ : সাইফুরের যত অপকর্ম (৯০২০)আজারবাইজান ৬টি গ্রাম আর্মেনিয়ার দখল মুক্ত করেছে (৮৩৪১)নতুন বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সামনে আনলো ইরান (৫৭১১)যে কারণে এই শীতেই ভারত-চীন মারাত্মক যুদ্ধের আশঙ্কা রয়েছে (৫৬৫০)অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের জানাজা অনুষ্ঠিত (৫২২৯)আজারবাইজান-আর্মেনিয়ার মধ্যে সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৯ (৫১৬৭)ছাত্রলীগের ঢাবি সভাপতি বক্তব্য স্পষ্টত সন্ত্রাসবাদের বহিঃপ্রকাশ (৫১৫০)