১১ এপ্রিল ২০২০

গোয়ালন্দে বাড়ির সীমানা দ্বন্দ্বে ২ যুবককে কুপিয়ে জখম

-

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে বাড়ির সীমানা নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে দুই যুবককে রাতের অন্ধকারে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। গোয়ালন্দ ঘাট থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ এজাহারভুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে।
জখম হওয়া যুবকরা হলো গোয়ালন্দ উপজেলার উত্তর উজানচর শ্রীধাম দত্তপাড়ার বিল্লাল মোল্লার ছেলে সবুজ মোল্লা (২০), হেলাল মোল্লার ছেলে সোহাগ (১৫) ও কুমড়াকান্দী গ্রামের জামাল মৃধার ছেলে রিমন (১৮)। সবুজ ও সোহাগ গোয়ালন্দ উপজেলা রেলগেট এলাকার মতি দোকানদারের ছেলে। আহত যুবকরা গোয়ালন্দ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি আছে।
সবুজ গোয়ালন্দ হাসপাতাল থেকে জানায়, তারা রেলগেট দোকান থেকে মহাসড়ক দিয়ে হেঁটে বাড়ি যাচ্ছিল। এমন সময় শ্রীধাম দত্তপাড়ার মানিক বাড়ই (৫৫), তার ছেলে প্রদ্বীপ বাড়ই (৩২), সঞ্জিবের ছেলে বিশ্বজিৎ (২০) এবং অজ্ঞাত আরো ৪-৫ জন হঠাৎ পিছন থেকে ধারালো অস্ত্র এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে।
এ সময় তারা সড়কের পাশে খালের পানিতে লাফিয়ে পড়ে আত্মরক্ষা করে। এরপর তাদের ডাক-চিৎকারে পার্শ্ববর্তী এলাকার মানুষ এগিয়ে এলে তারা সবাই পালিয়ে যায়। এ সময় সড়কে চলাচল করা গাড়ির আলোতে উল্লিখিত ৩ জনকে সে চিনতে পারে। মিরাজুলের বড় ভাই মতি দোকানদার জানান, মানিক বাড়ই সীমানা দখলকে কেন্দ্র করে কয়েক দিন আগে একদল সন্ত্রাসী ভাড়া করে এনে তার বাড়িতে হামলা করে ভাঙচুর করে। সন্ত্রাসী তার বাড়ির মহিলাদেরও এ সময় মার ধর করে। গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আশিকুর রহমান পিপিএম জানান, এ ব্যাপারে অভিযোগ পেয়ে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের আটক করার চেষ্টা চলছে।

 


আরো সংবাদ