৩০ মার্চ ২০২০

তজুমদ্দিনে ইটভাটায় পুড়ছে ম্যানগ্রোভ বনের গাছ

১ ভোলার তজুমদ্দিনে ইটভাটায় পোড়ানো হচ্ছে ম্যানগ্রোভ বনের কাঠ : নয়া দিগন্ত -

ভোলার তজুমদ্দিনের চাঁচড়ায় জনবসতি ও ফসলি জমিতে ইটভাটা তৈরি করে দেশীয় ম্যানগ্রোভ বনের কাঠ পোড়ানোর কারণে হুমকির মুখে পড়েছে পরিবেশ। ইট পোড়ানোর জন্য কাটা হচ্ছে চরাঞ্চলের ম্যানগ্রোভ গাছ। আইন অমান্য করে ভাটার মধ্যে তৈরি করা হয়েছে করাতকল ও স্থাপন করা হয়েছে ড্রাম চিমনি।
সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নে মেঘনা নদী তীরবর্তী কাটাখালী গ্রামে কৃষিজমি ও জনবসতিপূর্ণ এলাকায় তিন-চার বছর আগে স্থাপন করা হয় সেরা ব্রিকস নামের ইটভাটাটি। স্থাপনের পর থেকেই এই ভাটায় প্রতি বছরের নভেম্বর থেকে এপ্রিল পর্যন্ত ইট তৈরির করা হয়। বছরে প্রায় ২০-৩০ লাখ ইট তৈরির জন্য কাঠ পোড়ানো হয়। এসব কাঠ চোরাইভাবে সংগ্রহ করা হয় মেঘনার বাসনভাঙ্গা, চরমোজাম্মল ও কাঞ্চনপুরের ম্যানগ্রোভ থেকে। ইটভাটাটিতে ব্যবহার করা হয়নি পরিবেশবান্ধব জিগজ্যাগ চিমনি। সনাতন পদ্ধতিতে ড্রামের চিমনি ব্যবহার করে দেশীয় কাঠ পুড়িয়ে তৈরি হচ্ছে ইট। ড্রামের চিমনি ব্যবহার করলে ইট পোড়াতে কাঠের প্রয়োজন হয়। আর তা সংগ্রহ করা হয় মেঘনার চরাঞ্চলের ম্যানগ্রোভ বন থেকে। এসব কাঠ চেরানোর জন্য ভাটার মধ্যেই একটি করাতকল স্থাপন করা হয়েছে। ইটভাটাটিতে জ্বালানি হিসেবে কাঠ ব্যবহার করায় ইট পোড়ানোর মৌসুমে প্রচুর বিষাক্ত ধোঁয়া বের হয়। বিষাক্ত এই ধোঁয়ার কারণে এলাকায় ধান, রবিশস্য ও বসতবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। তবে ভাটাটি চালানোর জন্য পরিবেশ অধিদফতরের কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি মালিকের ছেলে ও ভাটার ম্যানেজার লিটন সিকদার।
স্থানীয়রা জানান, জনবসতিপূর্ণ কৃষিনির্ভর এলাকায় ফসলি জমিতে ইটভাটা তৈরি করার কারণে কৃষিনির্ভর পরিবারগুলোতে অভাব-অনটন দেখা দিয়েছে। এ ছাড়া সেরা ব্রিকসটি তাদের ফসলি জমির উপর স্থাপন করায় তাদের ফসল উৎপাদন কমে যাওয়ার পাশাপাশি ভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় বসতবাড়ির ব্যাপক ক্ষতিসহ বাগানের ফলদ গাছের ফলও কমে গেছে।
ভাটায় গিয়ে মালিক আবুল কাশেম মিয়াকে পাওয়া যায়নি। তবে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি তার মালিকানাধীন মেসার্স সেরা ব্রিকসের ইট পোড়ানোর সব বৈধতার ব্যাপারটি এড়িয়ে যান। পরিবেশ অধিদফতরের কোনো ছাড়পত্র ছাড়া কিভাবে ইটভাটা চালান এমন প্রশ্নের কোনো উত্তর দিতে পারেননি মালিক কাশেম মিয়া।
পরিবেশ অধিদফতরের ইট পোড়ানো নিয়ন্ত্রণ আইনের ৪ ধারার ৫ উপধারা অনুযায়ী আবাসিক এলাকা ও ফলদ বাগানের তিন কিলোমিটারের মধ্যে ইটভাটা স্থাপন করা সম্পূর্ণ অবৈধ। আইনে আরো বলা হয়েছে, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন আইন অনুযায়ী বিনা লাইসেন্সে কেউ করতে পারবে না। ভাটায় জ্বালানি হিসেবে কাঠ ব্যবহার করতে পারবে না। করলে অনধিক তিন বছরের কারাদণ্ড বা তিন লাখ টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইটভাটায় কাঠ পোড়ানোর বিষয়ে জানা নেই। শিগগিরই পরিবেশ অধিদফতরের আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ভোলা জেলা পরিবেশ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক আব্দুল মালেক মিয়া বলেন, ড্রামের চিমনি দিয়ে কাঠ ব্যবহার করে ইট তৈরি করা সম্পূর্ণ বেআইনি। তজুমদ্দিনের চাঁচড়ার অবৈধ মেসার্স সেরা ব্রিকসটির তালিকা ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জমা দেয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসকের অনুমতি পেলেই যেকোনো মুহূর্তে এটা উচ্ছেদে অভিযান চালানো হবে। তিনি আরো বলেন, সেরা ব্রিকসের মালিকপক্ষ ভোলা পরিবেশ অধিদফতরের কাছে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করলে ভাটাটি অবৈধ হওয়ায় তাদের আবেদনটি বাতিল করা হয়।


আরো সংবাদ

বৃদ্ধকে কান ধরে উঠবস করানো এসিল্যান্ডকে একহাত নিলেন আসিফ নজরুল (২৫১২৪)করোনার বিরুদ্ধে লড়াকু ‘বীর’ চিকিৎসক যে ভয়াবহ বার্তা দিয়েই মারা গেলেন (২৪৫০৫)ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর করোনার খবরে পেছনের দরজা দিয়ে পালালেন উপদেষ্টা (ভিডিও) (১৪৩৬৩)অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া আর নেই (১২১৬৯)মুক্ত খালেদা জিয়ার সাথে দেখা হলো না সানাউল্লাহর (৯৭৮৪)কান ধরে উঠবস করানো সেই এসিল্যান্ড প্রত্যাহার (৯৭০৮)করোনার ওষুধ আবিষ্কারের দাবি ডুয়েটের ৩ গবেষকের (৯১৭৪)প্রবাসীর স্ত্রীর পরকীয়ার বলি মেয়ে (৮৯০১)করোনার আক্রমণে করুণ অবস্থা যুক্তরাষ্ট্রের (৮৭৮৩)মোদি-যোগির রাজ্যে ক্ষুধার জ্বালায় ঘাস খাচ্ছে শিশুরা (৮৫৯৭)