১১ এপ্রিল ২০২০

সোনাতলায় নির্মাণকাজ শেষ না হতেই হেলে পড়েছে ব্রিজ

সোনাতলায় নির্মাণকাজ পুরোপুরি শেষ হওয়ার আগেই হেলে পড়া ব্রিজ : নয়া দিগন্ত -

বগুড়ার সোনাতলায় বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএডিসি) অর্থায়নে ১৩ লাখ ৫৭ হাজার ২০০ টাকা ব্যয়ে ১৫ মিটার দীর্ঘ ব্রিজ নির্মাণকাজ শেষ হতে না হতেই মাঝ খানের সিøপার হেলে পড়েছে। এমনকি ওই ব্রিজের দুই পাশের অ্যাপ্রোচে মাটি না থাকায় তা কাজে আসছে না। বিএডিসির ক্ষুদ্রসেচ উন্নয়ন প্রকল্পের (বগুড়া ও দিনাজপুর জেলা) আওতায় বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের ভেলুরপাড়া চার মাথা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন গাক অফিসের পাশে সিংরার পাড়া খালের ওপর মাঝারি সাইজ হাইড্রোলিক স্ট্রেকচার ১৫ মিটার দীর্ঘ একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হয়। ব্রিজটি নির্মাণ করতে সরকারের ব্যয় হয় ১৩ লাখ ৫৭ হাজার ২০০ টাকা। ব্রিজটির ওপর দিয়ে যানবাহন ও এলাকাবাসী যাতায়াত শুরু না করতেই গত বছরের বন্যায় ব্রিজটির মাঝখানের সিøপার দেবে গিয়ে উত্তর দিকে হেলে পড়েছে।
এ ছাড়াও বন্যার পানির স্রোতের তোড়ে ব্রিজের দুই পাশের অ্যাপ্রোজের মাটি সরে গিয়ে যানচলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ব্রিজটি নির্মাণ কাজের শুরু থেকেই নিম্নমানের কাজ করার অভিযোগ করেছে স্থানীয় লোকজন। জোড়গাছা ইউপি চেয়ারম্যান রোস্তম আলী মণ্ডল জানান, ব্রিজটির মাঝ খানের সিøপার উত্তর দিকে হেলে পড়েছে। এমনকি ব্রিজটির দুই পাশের অ্যাপ্রোজে মাটি না থাকায় পথচারীসহ যান চলাচল করতে পারছে না। সোনাতলা উপজেলা চেয়ারম্যান মিনহাদুজ্জামান লিটন জানান, ব্রিজটি নির্মাণের শুরু থেকেই স্থানীয় লোকজন নিম্নমানের কাজ করার অভিযোগ করেছে। বিএডিসি বগুড়া জোনের পিডি এসএম শহিদুল ইসলাম জানান, বন্যার পানির স্রোতের তোড়ে উজান থেকে ভেসে আসা একটি বাঁশঝাড় ওই ব্রিজের সাথে আটকে গিয়ে প্রবল স্রোতের ঘূর্ণিপাকের সৃষ্টি হয়। এতে ব্রিজটির নিচে থেকে মাটি সরে গিয়ে ব্রিজটির সিøপার দেবে যায়।


আরো সংবাদ