০৮ জুলাই ২০২০

বাগাতিপাড়ায় বৃদ্ধা ও মেহেরপুরে গৃহবধূূকে হত্যা গাংনীতে মহিলার লাশ উদ্ধার

-

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় নিজের শোবার ঘরেই রেহেনা বেগম (৬০) নামের এক বৃদ্ধাকে হত্যা করে বিছানায় ফেলে রেখে গেছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার জয়ন্তিপুরে এ ঘটনা ঘটে। পরিবারের দাবি, গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাস রোধ করে তাকে হত্যা করা হয়। তবে কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড তার প্রকৃত কারণ জানাতে পারেনি পুলিশ। নিহত রেহেনা বেগম উপজেলার জয়ন্তিপুর গ্রামের পল্লী চিকিৎসক মরহুম ইউনুস আলীর মেয়ে এবং কুষ্টিয়ার দৌলতপুর এলাকার সাফাতুল্লাহর স্ত্রী।
নিহতের ফুপাত ভাই আফজাল হোসেন জানান, রেহেনা বেগমের স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করায় প্রায় ২০-২৫ বছর আগে রেহেনা বেগম সন্তানদের নিয়ে বাবার এলাকায় চলে আসেন। এরপর থেকে তিনি জয়ন্তিপুর এলাকায় থাকতেন।
বাগাতিপাড়া থানার নবাগত ওসি আব্দুল মতিন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের গলায় ওড়না পেঁচানো লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে চুরি নাকি অন্য কোনো কারণে এই হত্যাকাণ্ডটি ঘটানো হয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ দিকে নিহতের ঘরের শোকেসের কাচ ভাঙা পাওয়া গেছে বলে তিনি জানান।
এদিকে মেহেরপুর সদর উপজেলার গোপালপুর গ্রাম থেকে তহমিনা খাতুন (৪২) নামের এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তহমিনা খাতুন একই গ্রামের রহিম বক্সের মেয়ে। বৃহস্পতিবার সকালের দিকে ঘরে লাশ পড়ে থাকতে দেখে প্রতিবেশীরা পুলিশে খবর দেয়। নিহত তহমিনার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায় এবং নাক দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল বলে জানায় পুলিশ।
স্থানীয়রা জানান, তহমিনার ১৩ বছর বয়সে বিয়ে হওয়ার সাত দিনের মাথায় তালাক হয়ে যায়। পরে আর বিয়ে হয়নি। বাবার একখণ্ড জমিতে টিনের ছাউনি দিয়ে ভাইয়ের একমাত্র সন্তান আকাশকে (১৭) নিয়ে ওই ঘরে থাকতেন তিনি। আকাশের বাবা-মা কেউ বেঁচে নেই। তাই আকাশ ও তার ফুপু তহমিনা মাঠে মরিচ তোলার কাজ করতেন। তবে এ ঘটনার পর থেকে তাহের পলাতক থাকায় তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
ঘটনার পর পুলিশ সুপার এস এম মুরাদ আলী ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনার তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে নিহতের পরিবারকে আশ^স্ত করেছেন তারা।
এছাড়া জেলার গাংনীতে পারভিনা খাতুুন (৪৩) নামের এক স্বামী পরিত্যক্তা মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার হাড়াভাঙ্গা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। পারভিনা কাজিপুর গ্রামের আতর আলীর মেয়ে ও কাজিপুর ইউপি চেয়ারম্যান রাহাতুল্লাহর শালিকা।
কাজিপুর ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু নাতেক জানান, গলায় ওড়না বাঁধা এক মহিলার লাশ বাজারের একটি দোকানের সামনে দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা তাকে জানায়। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। কাজিপুর ইউপি চেয়ারম্যান রাহাতুল্লাহ জানান, পারভিনা তার বাড়িতেই থাকত। কখন কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে তিনি জানেন না। পারভিনার চাচাতো ভাই নবী উদ্দীন জানান, গত দুই বছর আগে পারভিনা খাতুনের মাথায় সমস্যা হয়। তার বিয়ে হয়েছিল পার্শ্ববর্তী বালিয়াঘাট গ্রামের জুলহাসের সাথে। পরে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।
গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুর রহমান জানান, হাড়াভাঙ্গা মাদরাসা বাজারে পারভিনা নামের এক মহিলার লাশ রয়েছে এমন সংবাদ পেয়ে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা সুরতহাল প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর জানা যাবে।

 


আরো সংবাদ

কালিগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু রাণীনগরে উদ্ধার করা মূর্তি প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরে হস্তান্তর আমীর হোসেন আমু ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র রাণীনগর রেললাইন থেকে অজ্ঞাত নারীর মৃতদেহ উদ্ধার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে যুক্তরাষ্ট্রকে ডব্লিউএইচও’তে রাখার ঘোষণা বাইডেনের কাঁঠালিয়ায় বীরমুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম হিরু সিকদারের ইন্তেকাল সব কাজে মাস্ক ব্যবহার বিপদ ডেকে আনতে পারে গ্যাস কম্প্রেসর স্টেশন স্থাপনেই ১৩ বছর পীরগাছার করোনা রোগীদের অক্সিজেন সিলিন্ডার উপহার দিলেন বুয়েট ছাত্রলীগের সাবেক নেতারা লালমোহন ট্রাজেডির ১৭ বছর প্রেমিকার বাড়ির পাশ থেকে প্রেমিকের লাশ উদ্ধার

সকল