১৪ আগস্ট ২০২২
`

বেইজিং অলিম্পিক : কূটনৈতিক বয়কটে অস্ট্রেলিয়া

বেইজিং অলিম্পিক আয়োজনে ব্যস্ত এক কর্মী - ছবি : সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের পর অস্ট্রেলিয়াও বেইজিং অলিম্পিকে কূটনৈতিক স্তরে বয়কটের কথা জানিয়েছে।

সোমবার জানিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র, মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়ে দিলেন, বেইজিংয়ে শীতকালীন অলিম্পিকে অস্ট্রেলিয়া কোনো সরকারি অফিসারকে পাঠাবে না। চীনের মানবাধিকার লঙ্ঘন ও অস্ট্রেলিয়ার সাথে কূটনীতিক দূরত্ব তৈরি করাই এর কারণ। তবে ৪০ জন খেলোয়াড় বেইজিং অলিম্পিকে অংশ নেবেন বলেও জানানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র সরাসরি 'গণহত্যা' শব্দটি ব্যবহার করেছিল চীনের বিরুদ্ধে। অস্ট্রেলিয়া তা ব্যবহার না করলেও একই বিষয় উত্থাপন করেছে। অস্ট্রেলিয়ার অভিযোগ, দীর্ঘ দিন ধরে চীন মানবাধিকার লঙ্গন করছে। দেশের মানুষের বিরুদ্ধে কড়া ও অসহিষ্ণু ব্যবহার করছে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে এ বিষয়ে কথা বলতেও চায়নি তারা। একইসাথে অস্ট্রেলিয়ার বক্তব্য, অস্ট্রেলিয়ার সাথে কূটনৈতিক চ্যানেলেও কথা বলতে চায় না চীন। একাধিক বিষয়ে অস্ট্রেলিয়া তাদের সাথে কূটনৈতিক চ্যানেলে কথা বলতে চেয়েছে, কিন্তু চীন গুরুত্ব দেয়নি। এরই প্রতিবাদে তারা বেইজিং অলিম্পিক কূটনৈতিক স্তরে বয়কট করছে।

সূত্র : ডয়চে ভেলে


আরো সংবাদ


premium cement