১৩ জুলাই ২০২০

অস্ট্রেলিয়া মসজিদে উচ্চস্বরে আজানের অনুমতি 

অস্ট্রেলিয়া মসজিদে উচ্চস্বরে আজানের অনুমতি  - সংগৃহীত

করোনা পরিস্থিতিতে কানাডার পর এবার অস্ট্রেলিয়ার সিডনি শহরের লাকেম্বায় উচ্চস্বরে আজান প্রচারের অনুমতি দেয়া হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ায় সাধারণত মসজিদের ভেতরে আস্তে করে আজান দেয়া হয়। বড় মসজিদ এবং ঈদের নামাজের সময় ছোট মাইক্রোফোন ব্যবহার করা হয়। কিন্তু করোনার কারণে এই প্রথম উচ্চস্বরে অস্ট্রেলিয়ায় আজানের অনুমতি মিলল।
রমজানের শেষ দিন পর্যন্ত লাকেম্বায় লাউডস্পিকারে করে মাগরিবের আজান প্রচার করা হবে।
মসজিদটির পরিচালনাকারী অ্যাসোসিয়েশনের (এলএমএ) নির্বাহী পরিচালক আহমদ মালাস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়ার লেবানীয় মুসলিম কমিউনিটির প্রচেষ্টায় এই বিরল কাজ সাধ্য হয়েছে।
আহমদ মালাস জানান, করোনাভাইরাসের এই বৈশ্বিক মহামারীতে আজান প্রচার করার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। বুধবার সন্ধ্যায় যখন প্রথমবার আজান দেয়া হলো, পুরো মুসলিম কমিউনিটির মধ্যে সৃষ্টি হয় এক আবেগঘন পরিবেশ। এদিকে উচ্চস্বরে আজান অনুমতি মেলায় বাংলাদেশিসহ পুরো মুসলিম কমিউনিটিতে ব্যাপক ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। সিডনির লাকেম্বা শহরে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি কমিউনিটি থাকে।

এর আগে কানাডার ইতিহাসে প্রথমবারের মতো মসজিদ থেকে জোরে আযান দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। কানাডার কয়েকটি শহরে পবিত্র রমজান মাসের জন্য এই অনুমতি দেয়া হয়।
ফলে রাজধানী অটোয়ার পাশাপাশি টরেন্টো, এডমন্টন ও হ্যামিল্টন শহরের মসজিদগুলো থেকে জোহর, আসর ও মাগরিবের নামাজের আজান দেয়া যাবে।
এতদিন কানাডায় মসজিদে নামাজ পড়ার অনুমতি থাকলেও মাইকে আজান দেয়ার অনুমতি ছিল না।
সূত্র : পূবের কলম


আরো সংবাদ

যুবলীগ নেত্রীর টর্চার সেল নিয়ে টঙ্গীতে তোলপাড় (৮৭৬১)করোনার খবর লুকিয়ে ছিল চীন : বিস্ফোরক অভিযোগ পালিয়ে আসা গবেষকের (৭৩১৪)মধ্যপ্রাচ্য থেকে ফিরছেন ১৫ লাখ প্রবাসী! (৬৩৫২)৮ হাজারের বেশি মুসলিম গণহত্যার যে বিচার ২৫ বছরেও হয়নি (৫৫৫৪)বেসরকারি ব্যাংকে আতঙ্ক (৩৮১৫)বিব্রত ক্লিয়ারেন্স (৩৭৯৭)জেকেজির চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ পুলিশ হেফাজতে (৩৭৮৯)ইতালির প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য কয়েকটি বাংলাদেশী গণমাধ্যমে ভুলভাবে প্রকাশিত হয়েছে (৩৭৮২)মালয়েশিয়ায় নির্যাতনের চিত্র উঠে আসায় নতুন শঙ্কায় প্রবাসী বাংলাদেশীরা (৩৫৬০)নেতানিয়াহু সরকারের বিরুদ্ধে ইসরাইলে হাজার হাজার লোকের বিক্ষোভ (৩৩৩৭)