০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

অ্যান্ড্রু টেট ভক্তকুলের জন্য সুসংবাদ

অ্যান্ড্রু টেট ভক্তকুলের জন্য সুসংবাদ - ছবি : সংগৃহীত

মিক্সড মার্শাল আর্ট খেলোয়াড় তাম খান তার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে সহকর্মী প্রখ্যাত ব্রিটিশ-মার্কিন কিকবক্সার অ্যান্ড্রু টেটের সাথে সালাত আদায়ের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন। টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, অচিরেই টেটের ভক্তকুলের জন্য হৃদয় শীতলকারী সুসংবাদ আসছে।

গত শনিবার ভিডিওটি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

ভক্তকুলকে সতর্ক করে তাম খান বলেন, ‘অ্যান্ড্রু টেট এখন ৩৫ বছর বয়সী পরিণত যুবক। ইসলাম ঘোষণা না করলেও তিনি ইসলামের প্রতি মনেপ্রাণে মুগ্ধ। তাই বলে ইসলাম গ্রহণের ঘোষণা দিতে তাকে পীড়াপীড়ি করা যাবে না। তাকে আপন অবস্থার ওপর ছেড়ে দিন। জীবনের গতিধারা পরিবর্তন করা সহজ কোনো ব্যাপার নয়। এর জন্য সময় নিয়ে ভাবার প্রয়োজন হতে পারে। তবে এটি ঠিক, মানুষের জীবনের কোনো ভরসা নেই। তাই সত্য গ্রহণে বিলম্বিত করা সমীচীন নয়।’

ভিডিওটি ধারণের ব্যাপারে তাম খান বলেন, কিছুদিন আগে আমরা মসজিদ পরিদর্শনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছিলাম। দিন-তারিখও নির্ধারণ করেছিলাম। তবে নির্ধারিত দিনে আমি ওই পরিকল্পনার কথা ভুলে যাই। টেটই আমাকে বিষয়টি স্মরণ করান। পরে আমরা একসাথে মসজিদে যাই। সেখানে টেটও আমার সাথে নামাজ পড়েন। এ সময় আমি ভিডিওটি ধারণ করি। টেট সেটা দেখেছেন। কিন্তু কিছুই বলেননি। তিনি তো জানতেন, এটি সামাজিক যোগযোগমাধ্যমে শেয়ার হবে। এতে বিতর্কও সৃষ্টি হতে পারে। তবুও তিনি নিষেধ করেননি।

তিনি আরো বলেন, আমি ভিডিওটি শেয়ার করেছি, যেন বিষয়টি তার ওপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। তবে এটাই তার জীবনে প্রথমবারের মতো সালাত আদায় করা।

টেটের ইসলামের পথে যাত্রাকে অভিনব সাব্যস্ত করে তাম খান বলেন, আমি অত্যন্ত আনন্দিত। টেটের ইসলামের পথে যাত্রা কত সুন্দরভাবে শুরু হলো। আমরা শনিবার এক সাথে মসজিদে গেলাম। সেখানে সালাত আদায় করলাম। আমি তাকে কুরআন, হাদিস ও রাসূল সা:-এর জীবনী সম্পর্কে বিস্তর জানালাম। ইসলাম সম্পর্কে তার ভুল ধারণার অপনোদন করলাম। এছাড়া আরো অনেক কথাবার্তা হয়েছিল।

তিনি আরো বলেন, ভিডিওটি প্রকাশের এও একটি উপকারিতা হলো যে, এখন থেকে ছোট বাচ্চাদের সালাত আদায় ও ধর্মকর্ম পালনে লজ্জাবোধ থাকবে না।

তাম খান আরো বলেন, আমরা প্রথমে চিন্তা করেছিলাম, এটি পডকাস্ট বা অন্য কিছুতে শেয়ার করবো না। হতে পারে লোকেরা তখন ভাববে, এর দ্বারা তার ওপর ইসলাম গ্রহণে চাপ প্রয়োগ করা হচ্ছে। পরে মনে হলো, এর ভালো প্রভাবও তো থাকতে পারে। ওই ভাবনা থেকেই ভিডিওটি শেয়ার করা। তবে টেটের হৃদয় খুবই ভালো। ইসলামের প্রতি তার যথেষ্ট আগ্রহবোধও আছে।

সূত্র : আল জাজিরা


আরো সংবাদ


premium cement