১১ এপ্রিল ২০২০

সংবর্ধনায় আবেগে আপ্লুত হয়ে কাঁদলেন এসএ গেমসে স্বর্ণজয়ী ইতি

এসএ গেমস ২০১৯-এ আর্চারিতে ‘হ্যাটট্রিক মেডেল’ তথা তিনটি স্বর্ণের মেডেল জয়ী, চুয়াডাঙ্গার কৃতী সন্তান ইতি খাতুনকে সংবর্ধনা জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার আগে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে এ আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ইতি খাতুনের হাতে সংবর্ধনা ক্রেস্ট প্রদান করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার।

এ সংবর্ধনা পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়ে উতির পুরো পরিবার। ক্রেস্ট গ্রহণ শেষে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে আবেগে কেঁদে উঠেন স্বর্ণজয়ী ইতি খাতুন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) খোন্দকার ফরহাদ আহমদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ ইয়াহ্ ইয়া খান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মনিরা পারভীন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবুল বাশার, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার ও বাংলাদেশ আর্চারি ফাউন্ডেশনের কার্যকরী সদস্য সোহলে আকরাম। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রেবেকা সুলতানা, জেলা স্কাউটসের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হান্নান, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গরীব রুহানি মাসুম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহাজাদী আলম মিলি, ইতির পিতা ইবাদত আলী, মা আলিয়া বেগম, খালু ডালিম আলীসহ পরিবারের সদস্যরা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘আজ পর্যন্ত অলিম্পিকে বাংলাদেশর কোনো পদক নেই। আমরা আশা করি, ইতির হাতেই উঠবে অলিম্পিকের প্রথম পদক। এখন সে যে পর্যায়ে চলে এসেছে, এখান থেকে পিছু ফিরে তাকানোর সুযোগ নেই। তাই এখন শুধু সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। আমরা সবাই তার সঙ্গে আছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘ইতির পিতা-মাতাকে জমিসহ ঘর দেয়ার পরিকল্পনা চলছে। শহরের মণিরামপুর মৌজার মধ্যে একটা খাস জমি পেয়েছি। সরকারের পক্ষ থেকে ইতি ও ইতির পরিবারকে আমি সেই জায়গাটা উপহার দেব।’

প্রসঙ্গত, এসএ গেমস-এর আর্চারিতে স্বর্ণ জয় করা ইতি খাতুন চুয়াডাঙ্গা পৌর শহরের মুসলিম পাড়ার ইবাদত আলী ও আলিয়া বেগমের কন্যা। তিনি চুয়াডাঙ্গার ঝিনুক মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় থেকে এ বছর জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা দিয়েছে। ২০১৬ সালে চুয়াডাঙ্গা জেলা ক্রীড়া সংস্থার অধীনে আর্চারি প্রশিক্ষণে হাতে খড়ি লাভ করেন ইতি। এরপর নিজের মেধা, মনন আর নৈপুণ্য দেখিয়ে জায়গা করে নেন জাতীয় দলে অর্থ্যাৎ তীরন্দাজ সংসদ দলে। সম্প্রতি নেপালের পোখারায় অনুষ্ঠিত এসএ গেমস এ দেশের হয়ে স্বর্ণপদক জিতে লাল-সবুজের পতাকাকে তুলে দিয়েছেন অনন্য উচ্চতায়। অলিম্পিয়ান রোমান সানার সঙ্গে জুটি বেঁধে রিকার্ভের দলগত ও মিশ্র দলগতের স্বর্ণ জয় করে নেন তিনি। পরদিন নারীদের রিকার্ভে এককের স্বর্ণও জয় করেন তিনি। এসএ গেমসে একক, দলগত এবং মিশ্র দ্বৈত মিলিয়ে ইতি খাতুনের অর্জন তিনটি স্বর্ণ মেডেল।


আরো সংবাদ