২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯, ১ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

নতুন ৩টি সংস্থা ও ৫৫ ব্যক্তির উপর শ্রীলঙ্কার নিষেধাজ্ঞা আরোপ


শ্রীলঙ্কা গ্লোবাল তামিল ফোরাম (জিটিএফ) সহ ছয়টি তামিল আন্তর্জাতিক সংস্থা এবং ৩১৭ জন ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার পর নতুন করে তিনটি সংস্থা এবং ৫৫ জনকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। চলতি বছর পর্যালোচনার অংশ হিসেবে দেশটির সরকার নতুন করে এই সংস্থা ও ব্যক্তিদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। কয়েকটি সূত্র এই খবর জানিয়েছে।

চলতি বছরের ২৮ জুলাই প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মহাসচিব জেনারেল (অব:) কমল গুনারত্নে স্বাক্ষরিত গেজেট প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, গ্লোবাল তামিল ফোরাম (জিটিএফ), অস্ট্রেলিয়ান তামিল কংগ্রেস (এটিসি), ওয়ার্ল্ড তামিল কোঅর্ডিনেটিং কমিটি (ডব্লিউটিসিসি), তামিল ইলাম পিপলস অ্যাসেম্বলি (টিইপিএ), ব্রিটিশ তামিল ফোরাম (বিটিএফ) এবং কানাডিয়ান তামিল কংগ্রেসের (সিটিসি) ওপর থেকে নিষিদ্ধ তুলে নেয়া হয়েছে।

শ্রীলঙ্কা ১৮টি সংস্থাকে নিষিদ্ধের এই তালিকায় রেখেছিল।

একইসাথে ৫৭৭ জনের মধ্যে ৩১৭ জনের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে। এই তালিকায় জিটিএফের মুখপাত্র সুরেন সুরেন্দিরাননও আছেন।

লিবারেশন টাইগারস অফ তামিল ইলাম (এলটিটিই), তামিল রিহ্যাবিলিটেশন অর্গানাইজেশন (টিআরও), ট্রান্সন্যাশনাল গভর্নমেন্ট অব তামিল ইলাম (টিজিটিই), ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত (এনটিজে) এবং সেভ দ্য পার্ল সহ ১৫টি সংস্থার উপর নিষেধাজ্ঞা বহাল আছে।

একজন সিনিয়র সামরিক কর্মকর্তা ডেইলি মিররকে বলেন, নিষেধাজ্ঞার তালিকায় নাম যুক্ত বা সরিয়ে নেয়ার প্রক্রিয়াটি সেইসব সংস্থা এবং ব্যক্তিদের ওপর পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্তের পরে চালানো উচিত এবং এটি প্রতি বছর এই তালিকা পর্যালোচনা করা উচিত।

তিনি বলেন, ‘এটি পুরোপুরি আইন প্রয়োগকারী সংস্থার ওপর নির্ভর করে। রাজনীতিবিদদের কিছুই করার থাকে না। কারণ প্রতিটি দেশের উচিত সেই সংস্থা বা ব্যক্তিরা প্রতিবছর সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন করছে কি, করছে না সে সম্পর্কে সুস্পষ্ট প্রমাণ উপস্থাপন করা।’

সূত্র : ডেইল মিরর


আরো সংবাদ


premium cement