২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩
`

মৃত্যুর গুজব উড়িয়ে সুস্থ মাহাথির, খাবার বেশি খেতে পারছেন

মাহাথির মোহাম্মদ - ফাইল ছবি

মৃত্যুর গুজব উড়িয়ে দিয়ে আধুনিক মালয়েশিয়ার রূপকার ডা: মাহাথির মোহাম্মদ এখন প্রায় সুস্থ। স্বাভাবিকভাবে হাঁটাচলা ও খাওয়া-দাওয়া করছেন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাহাথির এখন আগের চেয়ে অনেকটাই সুস্থ হয়েছেন এবং আশঙ্কামুক্ত। বুধবারই তাকে করোনারি কেয়ার ইউনিট থেকে সাধারণ ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে। নিয়মিত খাবার গ্রহণ ও স্বাভাবিকভাবেই হাঁটছেন তিনি।

বিষয়টি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নিশ্চিত করেছেন মাহাথিরের বড় মেয়ে দাতিন পাদুকা মেরিনা মাহাথির।

মাহাথির মালয়েশিয়ার সাবেক সরকার প্রধান হলেও দক্ষিণ এশিয়া ও বাংলাদেশে তুমুল জনপ্রিয় একজন নেতা। বিশেষ করে রোহিঙ্গা ও ফিলিস্তিনের জেনোসাইডের বিরুদ্ধে তার তীব্র প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার বিষয়টি রয়েছে।

এদিকে বুধবার ও এর আগের দিন বাংলাদেশের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি গুজব ভাইরাল হয়েছে যে, মাহাথির মোহাম্মদ মারা গেছেন। পরে কোনো সংবাদ মাধ্যমে মাহাথিরের মৃত্যুর খবর প্রকাশিত না হওয়ায় সবার টনক নড়ে। অনকেই মালয়েশিয়ায় থাকা স্বজনদের কাছে ফোন করে জানতে চেয়েছেন মাহাথির জীবিত না মৃত।

অবশেষে সবাইকে তাক লাগিয়ে তিনি এখন হসপিটালের লনে হাঁটছেন।

মাহাথিরকন্যা জানান, তার পিতা আগের থেকে অনেকটাই নিরাপদ ও আশঙ্কামুক্ত। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, মাহাথির চিকিৎসক ও নার্সদের সাথে হাসি ঠাট্টায় মেতেছেন।

মেরিনা আরো বলেন, রিকভারির জন্য তিনি এখন বেশি বেশি খাবার খাচ্ছেন। এতে চিকিৎসক ও পরিবার মহাখুশি। তারা হাসি-ঠাট্টা করছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় দ্রুত সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছেন তিনি।

চিকিৎসকসহ যারা তার বাবার জন্য দোয়া করেছেন, দেশ-বিদেশের সকল শুভাকাঙ্ক্ষীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মাহাথিরকন্যা মেরিনা।

দক্ষিণ এশিয়ার শক্তিশালী রাজনৈতিক ৯৬ বছর বয়সী ডা: মাহাথির মোহাম্মদ গত ৭ জানুয়ারি বুকের সমস্যা নিয়ে দেশটির ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউটে ভর্তি হন। সিসিউতে নিবিড় পরিচর্যায় ছিলেন।

প্রথমদিকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার অবস্থা স্থিতিশীল। তখন স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা হাসপাতালের সামনে ভিড় জমিয়েছিলেন। সে সময় মাহাথির কন্যা মেরিনা তার বাবার জন্য দোয়া করার অনুরোধ জানিয়ে বলেছিলেন, ‘সবাই দোয়া করুন, আর এমন কোন খবর প্রচার করবেন না যাতে আমরা উদ্বিঘ্ন হই।’


আরো সংবাদ


premium cement

সকল