২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

চীনে কোরআন মজিদ অ্যাপ সরিয়ে নিয়েছে অ্যাপল


চীনে কর্মকর্তাদের অনুরোধের পর অ্যাপল বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় কোরআন অ্যাপ সরিয়ে নিয়েছে। সারা বিশ্বে অত্যন্ত জনপ্রিয় এই 'কোরআন মজিদ' অ্যাপ। অ্যাপ স্টোরে এটি পাওয়া যায়। এর রিভিউর সংখ্যা দেড় লাখের মতো। সারা বিশ্বে লাখ লাখ মুসলিম এই অ্যাপটি ব্যবহার করেন। এ বিষয়ে চীন সরকারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

সারা বিশ্বে অ্যাপ স্টোরের অ্যাপগুলোর ওপর নজর রাখে এরকম একটি ওয়েবসাইট 'অ্যাপল সেন্সরশিপে' এই খবরটি প্রথম প্রকাশিত হয়। অ্যাপটির নির্মাতা পিডিএমএস কোম্পানি এক বিবৃতিতে বলেছে, অ্যাপলের মতে, আমাদের অ্যাপ 'কোরআন মজিদ' চীনা অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। কারণ তাতে কিছু বিষয় ছিল যা অবৈধ। বিষয়টি সমাধানের জন্য আমরা চীনের সাইবারস্পেস প্রশাসন ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করছি।

কোম্পানিটি বলছে, চীনে তাদের প্রায় ১০ লাখের মতো ব্যবহারকারী রয়েছে। চীনা কমিউনিস্ট পার্টি ইসলামকে একটি ধর্ম বলে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার করে থাকে। তবে চীনের শিনজিয়াং প্রদেশে উইঘুর মুসলিমদের মানবাধিকার লঙ্ঘন, এমনকি গণহত্যার জন্যেও চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে।

কোরআন অ্যাপটি সরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে বিবিসির কাছে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে অ্যাপল। তবে তারা মানবাধিকার বিষয়ে তাদের নীতির কথা উল্লেখ করেছে।

অ্যাপলের ওই নীতিতে বলা হয়েছে, আমাদেরকে স্থানীয় আইন মেনে চলতে হয়, জটিল কোনো বিষয়ের ক্ষেত্রেও। যে ব্যাপারে আমরা সরকারের সাথে দ্বিমতও পোষণ করে থাকতে পারি। তবে চীনা এই অ্যাপটি কোনো আইনভঙ করেছে তা এখনো পরিষ্কার নয়।

‘কোরআন মজিদ’ অ্যাপের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সারা বিশ্বের সাড়ে তিন কোটিরও বেশি মুসলিমের এই অ্যাপটির ওপর আস্থা রয়েছে। গত মাসে অ্যাপল ও গুগল রাশিয়ার কারারুদ্ধ বিরোধী নেতা আলেক্সেই নাভালনির পরিকল্পিত একটি ট্যাকটিক্যাল ভোটিং অ্যাপ সরিয়ে নেয়। ওই অ্যাপটি সরিয়ে না নিলে রুশ কর্তৃপক্ষ এই দু’টি কোম্পানিকে জরিমানা করা হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছিল।

চীন অ্যাপলের জন্য অন্যতম বৃহৎ একটি বাজার। এমনকি এই কোম্পানির বিভিন্ন সামগ্রীর সরবরাহ চীনা কল-কারখানার ওপর নির্ভরশীল।

চলতি সপ্তাহে চীনে আরো একটি জনপ্রিয় ধর্মীয় অ্যাপ, অলিভ ট্রির 'বাইবেল অ্যাপ' নামিয়ে নেয়া হয়েছে। তবে বিবিসি জানতে পেরেছে, কোম্পানিটি নিজেই অ্যাপটি সরিয়ে নিয়েছে। এ বিষয়ে অলিভ ট্রির সাথে যোগাযোগ করা হলে তারাও কোনো মন্তব্য করেনি।

অ্যাপল সেন্সরশিপের প্রকল্প পরিচালক বেঞ্জামিন ইসমাইল বলেছেন, সম্প্রতি অ্যাপল বেইজিংয়ের সেন্সরশিপ ব্যুরোতে পরিণত হয়েছে। তাদেরকে সঠিক কাজটাই করতে হবে। তারপর চীন সরকারের প্রতিক্রিয়া মোকাবিলা করতে হবে।

বৃহস্পতিবার মাইক্রোসফট বলেছে, তারা চীনে তাদের লিঙ্কডিন নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দিচ্ছে। তারা বলছে, চীনের ইচ্ছে অনুযায়ী কাজ করা ক্রমশ কঠিন হয়ে পড়ছে।

সূত্র : বিবিসি



আরো সংবাদ


যে কারণে ঝর্ণাকে আদালতে হিজাব খুলতে নিষেধ করলেন মামুনুল হক (১৬৩৯৪)করোনায় মৃত্যু এক দিনে তিন গুণ বৃদ্ধি (১২৪৬৩)খালেদা জিয়াকে যে ৩ দেশে নিয়ে যেতে বলেছেন চিকিৎসকরা (১১৮৬৬)মেয়র পদ থেকেও বরখাস্ত হলেন জাহাঙ্গীর (৯৮৫৯)সেরা করদাতা হলেন আইজিপি বেনজীর আহমেদ (৬৩২১)১০৭ বছরের যৌথ ব্যবসায় ভাঙন, ১,৫০০ কোটি ডলারের সম্পত্তি নিয়ে লড়াই হিন্দুজা ভাইদের (৬০৬৩)পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ২১ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন, যে আদেশ দিলো আদালত (৫৯০১)মুক্তিযোদ্ধাদের ১০ শতাংশ কোটার বিধান বাতিল করলো হাইকোর্ট (৫৮১৩)গাজীপুরে মেয়র জাহাঙ্গীরের দলীয় পদে আতাউল্লাহ (৫৮০৩)আইএস খোরাসানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে সৈন্য পাঠাল তালেবান (৫১৪৬)