০৫ ডিসেম্বর ২০২০

পাকিস্তানি ভিসার আবেদন করতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ১৫ আফগান নাগরিকের মৃত্যু


পাকিস্তান ভ্রমণের জন্য ভিসা আবেদন করতে গিয়ে আফগানিস্তানে পদদলিত হয়ে কমপক্ষে ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ওই ঘটনায় আরো অনেকেই আহত হয়েছে। বুধবার সকালে আফগানিস্তানের জালালাবাদে অবস্থিত পাকিস্তান কনস্যুলেটের কাছে এই ঘটনাটি ঘটে।

এক প্রাদেশিক মুখপাত্র জানিয়েছেন, পাকিস্তানের ভিসার আবেদনের জন্য পাসপোর্ট জমা দিতে কয়েক হাজার মানুষ জড়ো হয়েছিলেন। সে সময় পদদলিত হয়ে বহু হতাহতের ঘটনা ঘটে।

কাতারভিত্তিক সম্প্রচারমাধ্যম আল-জাজিরা তাদের এক প্রতিবেদনে জানায়, জালালাবাদের একটি স্টেডিয়ামে কয়েক হাজার আফগান নাগরিক পাকিস্তানের ভিসা নিতে আসেন। বুধবার সকালে সেখানে হুড়োহুড়ি লেগে যায়। পরে পদদলিত হয়ে ১১ নারীসহ ১৫ জনের মৃত্যু হয়।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিহতদের মধ্যে ১১ জনই নারী। দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় পাকিস্তানি কনস্যুলেটের কাছে ওই পদদলিত হয়ে হতাহতের এই ঘটনা ঘটে। আফগানিস্তানের জালালাবাদ শহরের পাকিস্তানি ভিসা সেন্টারে সাধারণত ভিসার আবেদন গ্রহণ করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি ওই ভিসা সেন্টারের বদলে একটি স্টেডিয়ামে এই কার্যক্রম চলছিল। সেখানে অনেক মানুষ ভিড় করায় পদদলনের ঘটনা ঘটে।

করোনা মহামারির কারণে ৭ মাস ধরে পাকিস্তানের ভিসার আবেদন বন্ধ ছিল। সম্প্রতি তা পুনরায় চালু করা হয়েছে। জালালাবাদের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কনস্যুলেট অফিস থেকে টোকেন সংগ্রহ করতে হুড়োহুড়ি শুরু করেন আবেদনকারীরা। ফলে অনেক মানুষ পদদলনের শিকার হয়। কর্তৃপক্ষ বলছে, লোকজনের ভিড় নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছিল না।

প্রাদেশিক কাউন্সিলের সদস্য সোহরাব কাদেরী বলেন, দুর্ঘটনায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ১১ জনই নারী। এছাড়া বয়স্ক আরো বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

অপর দুই প্রাদেশিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের ভিসার জন্য টোকের সংগ্রহ করতে ওই স্থানে জড়ো হয়েছিলেন ৩ হাজারের বেশি আফগান নাগরিক। প্রতি বছরই আফগানিস্তান থেকে বহু মানুষ প্রতিবেশী পাকিস্তানে ভ্রমণ করে থাকেন। তারা তাদের স্বজনদের সঙ্গে দেখা করতে যান বা চিকিৎসা, চাকরি অথবা দেশের সহিংসতা থেকে বাঁচতে পাকিস্তানে পাড়ি জমান।

এদিকে ভিসা সংগ্রহের জন্য পাসপোর্ট জমা দিতে এসে ভিড়ে মধ্যে পড়ে পদদলিত হয়ে ১৫ আফগান নাগরিকের মৃত্যুসহ হতাহতের ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন আফগানিস্তানে নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত মানসুর আহমেদ খান। তিনি বলেন,‘হতাহতের পরিবারের সদস্যদের প্রতি আমরা সমবেদনা জানাচ্ছি। ভিসাপ্রার্থীদের সুযোগ-সুবিধা আরো বাড়াতে আফগান কর্তৃপক্ষের সাথে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

রয়টার্স জানিয়েছে, প্রতি বছর চিকিৎসা, শিক্ষা ও কাজ খুঁজতে হাজার হাজার আফগান নাগরিক প্রতিবেশী পাকিস্তানে যায়। পাকিস্তানে প্রায় ৩০ লাখ আফগান উদ্বাস্তু ও অভিবাসী অবস্থান করছে। নিজেদের যুধ্ববিধ্বস্ত দেশে বিরাজমান সহিংসতা, দারিদ্র ও ধর্মীয় নিপীড়ন থেকে বাঁচতে তারা প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানে আশ্রয় নেয়।

উল্লেখ্য, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যে দুই হাজার ৬০০ কিলোমিটার যৌথ সীমান্ত আছে। সূত্র : আলজাজিরা, বিবিসি ও রয়টার্স


আরো সংবাদ

করোনা : ভারতে আরো ৩৬ হাজারের বেশি শনাক্ত ভোটে জয়ী নয়া হিটলার! অবাক কাণ্ডে তোলপাড় আমি মন্ত্রী হবো কোনোদিন ভাবিনি : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী প্রেসিডেন্ট হতে আনুষ্ঠানিকভাবে পর্যাপ্ত ‘ইলেক্টর’ পেলেন বাইডেন স্ত্রীর সাথে পরকীয়ার জেরে চাচতো ভাইকে পিটিয়ে আহত 'হিন্দুরা গাদ্দার', যুবরাজের বাবার বক্তব্যে উত্তাল ভারত ২০ বছর পর হত্যার রহস্য উদঘাটন, দ্রুত বিচারের দাবিতে মানববন্ধন মহাকাশেও মুলার বাম্পার ফলন, যে কারণে পৃথিবীর বাইরে মুলা চাষ পঞ্চাশোর্ধ বিধবাকে ধর্ষণ, সালিশে অভিযুক্তকে জরিমানা আদালতেই গ্রেফতার বিয়ে করতে আসা মুসলিম যুবক, মেয়েটির চিৎকারে হতবাক কোর্ট চত্বর আমরা মানচিত্র-পতাকা পেয়েছি কিন্তু স্বাধীনতা পাইনি : ডা: ইরান

সকল