২০ অক্টোবর ২০২০

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রতিশ্রুতি পূরণ না করায় প্রশ্নবিদ্ধ মিয়ানমার

-

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে নিজেদের প্রতিশ্রুতি পূরণ না করায় মিয়ানমারকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন দেশটির মানবাধিকার পরিস্থিতিবিষয়ক জাতিসঙ্ঘের বিশেষ দূত থমাস অ্যান্ড্রুজ।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে শরণার্থী শিবিরে আটকে থাকা ব্যক্তিদের জন্য ন্যায়বিচার কোথায়? আর তাদের ওপর গণহত্যা চালানোর অপরাধে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে যে সেনাবাহিনীকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে সেই সেনাবাহিনীর জন্যই তাদের ভূমিতে স্থাপনা তৈরি করা হয়েছে।’

‘প্রত্যাবাসন শুরু আমাদের অগ্রাধিকার’ বলে মিয়ানমার গত সপ্তাহে মানবাধিকার কাউন্সিলে যে বক্তব্য দিয়েছে তার জের ধরে অ্যান্ড্রুজ প্রশ্ন করেন, ‘তবে যারা এক সময় কান কায়াতে বাস করতেন তাদের জন্য প্রত্যাবাসনের মানে কী হবে? তারা কীভাবে তাদের জন্মস্থানের অংশ হবেন যেখানে জায়গাটি সামরিক ঘাঁটিতে পরিণত হয়েছে?’

বাংলাদেশ কক্সবাজার জেলায় ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছে এবং গত তিন বছরে কেউই দেশে ফেরেননি।

অ্যান্ড্রুজ বলেন, ‘দায়মুক্তি এবং মানবাধিকারের সহাবস্থান থাকতে পারে না।’

২০১৭ সালের আগস্টে রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে গণহত্যা, ধর্ষণ ও অন্যান্য অপরাধ বিষয়ে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দুই দলত্যাগী সদস্যের স্বীকারোক্তি দেয়া ভিডিও টেপের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি মিয়ানমার সরকারকে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত এবং মিয়ানমারবিষয়ক স্বাধীন তদন্ত ব্যবস্থাকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।

সূত্র : ইউএনবি


আরো সংবাদ

ব্যর্থতার জন্য বিএনপির নেতাদের পদত্যাগ করা উচিত : সেতুমন্ত্রী ঢাবি ভর্তি পরীক্ষা হবে সশরীরে, নম্বর বিভাজনে আসছে পরিবর্তন বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের সাথে বন্দুকযুদ্ধে পিসিপি নেতা নিহত করোনা : বিদেশগামীদের নমুনা পরীক্ষায় ১০ প্রতিষ্ঠানকে অনুমতি তথ্য প্রযুক্তি খাতে আরো ১০ লাখ কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা হবে : পলক ঢাকা-১৮ উপ-নির্বাচন আমাদের জন্য একটা বিরাট চ্যালেঞ্জ : আমান দেশে করোনায় আরো ১৮ জনের মৃত্যু উপ-নির্বাচনের ফলাফল বাতিল করে আবার নির্বাচনের দাবিতে মির্জাপুরে বিএনপির মানববন্ধন আকবর বিদেশে পালিয়ে গেলেও ফিরিয়ে আনা হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী পুঠিয়ায় পায়ের রগ কাটা লাশ উদ্ধার মেজর সিনহা হত্যা মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ, শুনানি ১০ নভেম্বর

সকল