০৭ আগস্ট ২০২০

তালেবান সহিংসতা আফগান শান্তি প্রক্রিয়ায় ‘মারাত্মক হুমকি’ : আশরাফ গনি

24tkt

আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি সোমবার সতর্ক করে বলেছেন, তালেবান সহিংসতা দেশটির শান্তি প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে মারাত্মক হুমকি হিসেবে দেখা দিয়েছে। এদিকে তিনি এ জঙ্গি গ্রুপের সাথে শান্তি আলোচনায় কাবুলের প্রস্তুতির বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবহিত করেন। খবর এএফপি’র।

আফগান কর্তৃপক্ষ ও তালেবান দারিদ্র্যপীড়িত দেশ আফগানিস্তানে প্রায় দুই দশকের পুরোনো যুদ্ধের অবসানে আলোচনায় বসার প্রস্তুতি নিচ্ছে। অবশ্য কর্মকর্তারা সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে নিরাপত্তা বাহিনীর কয়েকশ’ সদস্য ও বেসামরিক নাগরিকদের হত্যার জন্য জঙ্গিদের দায়ী করছে। গত মে মাসে তালেবান প্রস্তাবে আকস্মিক এক অস্ত্রবিরতি চুক্তির পর এ সহিংসতা হ্রাস পেয়েছিল।

প্রত্যাশিত শান্তি আলোচনার বিষয় আন্তর্জাতিক গোষ্ঠীকে জানানোর লক্ষ্যে ঘানি অনলাইনে তিন সম্মেলনের প্রথমটির আয়োজন করেন সোমবার ।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে এ অনলাইন সম্মেলনে অংশ নেয়াদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘তালেবান বিদ্রোহীরা যুদ্ধ অব্যাহত রাখলে আফগান শান্তি প্রক্রিয়া মারাত্মক হুমকির মুখে পড়বে।’

প্রেসিপেন্টের দফতর থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে গনি বলেন, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে, আফগানিস্তানে সহিংসতার বর্তমান মাত্রা গত বছরের তুলনায় অনেক বেশি।’ ঘানি এ সপ্তাহের শেষের দিকে আরো দু’টি ভিডিও সম্মেলনের আয়োজন করছেন।

কর্মকর্তারা জানান, জাতিসংঘের মতো কিছু আন্তর্জাতিক সংস্থার পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া এসব ভিডিও সম্মেলনে অংশ নিচ্ছে।
সম্মেলনে অংশ নেয়া অপর দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে পাকিস্তান,ভারত, ইরান, চীন, মিশর ও কাতার।

অনলাইনে প্রথম এ সম্মেলন শুরুর মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে সোমবার সকালে গনির মুখপাত্র আফগানিস্তানে সহিংসতা বেড়ে যাওয়ার জন্য তালেবানের সমালোচনাও করেন।

সাদিক সাদেকি সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ শান্তি প্রক্রিয়ায় আমাদের পক্ষে কোন বাধা না থাকলেও আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এ ব্যাপারে তালেবান আন্তরিক না।’

‘আফগান সরকার দেশে সহিংসতা হ্রাসে অনেক তালেবান যোদ্ধাকে মুক্তি দিলেও এখনো সহিংসতা কমতে দেখা যাচ্ছে না।

গত ফেব্রুয়ারিতে ওয়াশিংটনের সাথে করা চুক্তির আওতায় জঙ্গিদের দাবি অনুযায়ী ৫ হাজারের মধ্যে ৪ হাজারের বেশি তালেবান বন্দিকে আফগান কর্তৃপক্ষ মুক্তি দিয়েছে।

উল্লেখ্য, তালেবান ও সরকারের মধ্যে সরাসরি শান্তি আলোচনার তারিখ এখনো নির্ধারণ হয়নি। বাসস


আরো সংবাদ