১৪ জুলাই ২০২০

মুরগির চামড়া দিয়ে জুতা বানিয়ে রাতারাতি বিখ্যাত

মুরগির চামড়া দিয়ে জুতা বানিয়ে রাতারাতি বিখ্যাত নুরমান
মুরগির চামড়া দিয়ে জুতা বানিয়ে রাতারাতি বিখ্যাত নুরমান - ছবি : সংগৃহীত

বিভিন্ন প্রাণীর চামড়া দিয়ে নানা ধরণের পণ্য তৈরি করা হয়। জুতা, কাপড়, বেল্ট, ব্যাগসহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস তৈরি হয়। তবে মুরগির চামড়া দিয়ে জুতো কেউ বানায়নি আজ পর্যন্ত।

এবার এই কাজ করে রাতারাতি খ্যাতি পেয়েছে ইন্দোনেশিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান। হিরকা নামের এই ব্র্যান্ডের জুতো তৈরিতে ব্যবহৃত হয় মুরগির পায়ের চামড়া।

প্রতিষ্ঠানটির উদ্যোক্তা জানিয়েছেন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার উদ্দেশ্য থেকেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দেখতে সাধারণ চামড়ার জুতো মনে হলেও, প্রচলিত কাঁচামালে তৈরি নয় এ জুতো। দর্শনীয় এবং আরামদায়ক এসব জুতো তৈরি হয়েছে মুরগির পায়ের চামড়া থেকে। ফেলে দেওয়া মুরগির পা সংগ্রহ করার পর এগুলোর চামড়া প্রক্রিয়াজাত করা হয়। তারপর তৈরি করা হয় বিভিন্ন ডিজাইনের জুতো। ইন্দোনেশিয়ায় তরুণ উদ্যোক্তা নুরমান ফারিয়েকা রামধানির হাত ধরে ২০১৭ সালে যাত্রা শুরু হয় জুতো প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান হিরকা।

মূলত বর্জ্যকে কাজে লাগানোর ভাবনা থেকেই নেওয়া হয় এমন অভিনব উদ্যোগ। এক জোড়া জুতো তৈরিতে প্রয়োজন ৪৫টি মুরগির পা। বিক্রি হয় ৩৫ ডলার থেকে ১৪০ ডলারের মধ্যে।

নুরমান ফারিয়েকা বলেন, ‘প্রতিদিন হাজার হাজার মুরগির পা ফেলে দেওয়া হয়। সেগুলো কাজে লাগানোর চেষ্টা করি।’ পুবের কলম


আরো সংবাদ