১০ এপ্রিল ২০২০

বলিভিয়ায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ৩ মে

-

বলিভিয়ার জনগণ আগামী ৩ মে ভোটের মাধ্যমে তাদের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করবেন। বিতর্কিত নির্বাচনের কারণে রাজপথে সহিংস প্রতিবাদ এবং প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেসে পদত্যাগের প্রায় ছয় মাস পরে নতুন করে এই নির্বাচন হতে যাচ্ছে। খবর এএফপি’র।

বিক্ষোভের কারণে মোরালেস দেশ থেকে মেক্সিকো পালিয়ে গেলে জেনিন আনেজ অন্তর্বর্তীকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

সুপ্রিম ইলেকটোরাল ট্রাইব্যুনালের সহ সভাপতি অস্কার হাসেনটিউফেল জানান, যতদূর জানা গেছে মে মাসের প্রথম রোববারে নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

প্রাথমিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সম্ভাব্য দ্বিতীয় দফায় নির্বাচনের শিডউইলে প্রার্থীদের পদত্যাগের তারিখ, প্রচারণার সময়সীমা, প্রচার সংক্রান্ত বিধিমালা ও আইন কানুন জানিয়ে দেয়া হবে।

বলিভিয়ায় গত ২০ অক্টোবর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর থেকে অশান্তিকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। মোরালেস ১৪ বছর জোর করে ক্ষমতায় থাকার পর ব্যাপক বিতর্কিত এক নির্বাচনে মোরালেস চতুর্থবারের মতো নির্বাচিত হন। এতে করে রাজপথ সহিংস আন্দোলনে মুখর হয়ে ওঠে।

১০ নভেম্বর সেনাবাহিনীর সমর্থন হারিয়ে বলিভিয়ার প্রথম আদিবাসী প্রেসিডেন্ট পদত্যাগ করে মেক্সিকো পালিয়ে যান। পরে তিনি আর্জেন্টিনা প্রত্যাবর্তন করেন।

মুভমেন্ট ফর সোস্যালিজম (এমএএস) পার্টির সমাজতান্ত্রিক নেতা মোরালেস এএফপিকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সেনাবাহিনীর চাপে তিনি পদত্যাগ করেন। দক্ষিণ আমেরিকার এই দেশটির বিশাল লিথিয়াম সম্পদ হাতিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্য এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

লিথিয়াম উচ্চ-প্রযুক্তি সম্পন্ন ল্যাপটপ ও গাড়ির ব্যাটারীর মূল উপকরণ হওয়ায় বিশ্বব্যাপী এর চাহিদা রয়েছে বলে মনে করা হয়।


আরো সংবাদ