০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৮, ১৩ রজব ১৪৪৪
ads
`

অতিরিক্ত দামে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিক্রি রোধে অভিযান

-

কৃত্রিম সঙ্কট সৃষ্টি করে উচ্চমূল্যে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার (হাত ধোয়ার জীবাণুনাশক) বিক্রির দায়ে পুরান ঢাকার মিটফোর্ডের একটি ওষুধের মার্কেটে ৮ প্রতিষ্ঠানকে পৌনে ১৭ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশাপাশি এক ব্যবসায়ীকে এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। গত মঙ্গলবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত সুরেশ্বরী মেডিসিন প্লাজায় এ অভিযান চালানো হয়। র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন।
র্যাব জানায়, মিটফোর্ডের আকমল খান রোডে সুরেশ্বরী মেডিসিন প্লাজায় গোয়েন্দা নজরদারি চালানোর পর ক্রেতা সেজে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার কিনতে চাওয়া হয়। শুরুর দিকে ব্যবসায়ীরা তা না থাকার তথ্য দেয়। পরে উচ্চমূল্যে তা কেনা হয়। এরপর দুপুর ১২টার দিকে ওই মার্কেটে অভিযান শুরু হয়।অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, অবৈধ মজুদ ও উচ্চ মূল্যে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিক্রির অপরাধে তপু অ্যান্ড ব্রাদার্সকে দুই লাখ টাকা, দেওয়ান এন্টারপ্রাইজের মালিককে এক বছরের জেল ও ৬ লাখ টাকা জরিমানা এবং আল ওয়ারী সার্জিকেলকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি জানান, একই অভিযানে লোকনাথ ড্রাগ হাউজকে ৭৫ হাজার টাকা, মা মেডিসিন হাউজকে দেড় লাখ টাকা, ওয়েব মেডিসিনকে ৩ লাখ টাকা, আনোয়ারা সার্জিকেলকে ২ লাখ টাকা এবং সার্জি গ্লো হাউজকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
সারওয়ার আলম বলেন, দেশের মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবরে এসব অসাধু ব্যবসায়ীরা মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি করেছিল। এরপর এসব পণ্য উচ্চ মূলে বিক্রি করে আসছিল। তাদের মতো আরো অনেকে রয়েছে। সব অসাধু ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অভিযান চলমান থাকবে।
দারাজকে দুই লাখ টাকা জরিমানা
অতিরিক্ত দামে মাস্ক বিক্রি করায় অনলাইন শপিং সাইট দারাজ ডটকমকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছে র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত রোববার রাতে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে দারাজের ওয়্যার হাউজে অভিযান শেষে র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম তাদের জরিমানা করেন।
অভিযান শেষে র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, দারাজে বিভিন্ন বিক্রেতা বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন দেয়, তারাই মাস্কের অতিরিক্ত দাম নেয়। কিন্তু দারাজ এগুলো নজরদারি করেনি। তাদের সতর্ক করা হয়েছে। দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখতে ভবিষ্যতে তারা নজরদারি করবে।
এর আগে অভিযানে দেখা যায়, দারাজে ৫০ পিসের সার্জিক্যাল মাস্কের বক্স বিক্রি হচ্ছে ২২৫৫ টাকায়। অথচ পাইকারি বাজারে এই বক্সের দাম সর্বোচ্চ ৫০ টাকা।
অভিযানে ম্যাজিস্ট্রেট দেখতে পান, দারাজে অ্যান্টি পলিউশন সেফটি মাস্ক তিন পিস ৪৭০ টাকায়, অ্যান্টি ডাস্ট মাস্ক পাঁচ পিস ১২৫৫ টাকা, সাধারণ সার্জিক্যাল মাস্ক প্রতিটি ৪২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
অভিযানের বিষয়ে ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, করোনা মোকাবেলায় সরকার নানা ধরনের উদ্যোগ নিয়েছে। এর অন্যতম হচ্ছে সবার জন্য মাস্কের মূল্য নির্ধারণ। তবে দারাজের ওয়েবসাইটে সরকার নির্ধারিত দাম থেকে অতিরিক্ত দামে মাস্ক বিক্রির বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছে। তাই এই অভিযান চলছে।


আরো সংবাদ


premium cement
সব সম্পদ দান করলেন এতিমদের, কয়েক বছর পর তাদের দেখতে এসে আবেগাপ্লুত যুবক (ভিডিও) তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীন ভোট চান হিরো আলম চান্দিনায় পুলিশ পরিচয়ে ফের ছিনতাই, আটক ৪ গণতন্ত্র সূচকে দেশের অগ্রগতি বিএনপি’র সমালোচনাকে অসার প্রমাণ করেছে : তথ্যমন্ত্রী রাশিয়ায় এ বছরই আলু রফতানি শুরু হবে : কৃষিমন্ত্রী ঈশ্বরগঞ্জে নারী ইউপি সদস্যকে মারধর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা সক্ষম সবাইকে কর প্রদানের আহবান প্রধানমন্ত্রীর মার্চেই আসছে আদানির বিদ্যুৎ : প্রতিমন্ত্রী কালীগঞ্জে জামায়াতের শীতবস্ত্র বিতরণ বিয়ের ছবি ভাইরালকারীদের ওপর ‘বিরক্ত’ আফ্রিদি সব ফ্লাইওভার থেকে পোস্টার অপসারণে নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

সকল