০৬ আগস্ট ২০২০

সোমালিয়ায় তুর্কি প্রকৌশলীদের লক্ষ্য করে গাড়ি বোমা হামলা

24tkt

শনিবার সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুর উত্তরপশ্চিমে আফগোয়ে এলাকায় গাড়ি বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। সেখানে তুর্কি প্রকৌশলীরা উপস্থিত ছিলেন। প্রতিবেদনটি লেখা পর্যন্ত হতাহতের সংখ্যা জানা যায়নি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে যে, এটি একটি আত্মঘাতী হামলা ছিল। ‘তুর্কি প্রকৌশলীরা কয়েকজন সোমালি পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে বসে দুপুরের খাবার খাচ্ছিলেন। এমন সময় প্রচণ্ড গতিতে গাড়িটি সেখানে হামলা চালায়,’ আফগোয়ে থেকে রয়টার্সকে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা নূর আলি।

হামলার দায় এখনো কেউ স্বীকার না করলেও, স্থানীয়দের ধারণা সন্ত্রাসী সংগঠন আল শাবাব এই হামলা চালিয়েছে। তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, শুক্রবার মোগাদিসু থেকে মাত্র ৩০ কিলোমিটার দূরে আফগোয়েতে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আল কায়েদা ‘সমর্থিত’ সংগঠনটির আরো দু'টি হামলা ঠেকিয়ে দিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

সংগঠনটি এর আগেও পূর্ব আফ্রিকার দেশ সোমালিয়ায় হামলা চালিয়েছে এবং দায়ও স্বীকার করেছে। তারা জাতিসঙ্ঘ সমর্থিত সোমালিয়ার বর্তমান সরকারকে উৎখাত করতে চায়।

ঘটনা সম্পর্কে স্থানীয় দোকানি ফারাহ আবদুল্লাহ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন,‘আমরা বোমা বিস্ফোরণের আওয়াজ পাই এবং পুরো এলাকা ধোঁয়ায় ভরে যায়। হামলার আগে সোমালি পুলিশের নিরাপত্তায় তুরস্কের বেশ কয়েকজন প্রকৌশলী এখানে আসেন।’

তিনি আরো বলেন,‘আমরা কয়েকজনের দেহ সেখান থেকে সরিয়ে নিতে দেখেছি। তারা নিহত না আহত বোঝা যাচ্ছিল না।’

২০১১ সালের দুর্ভিক্ষের পর থেকে সোমালিয়ায় সবচেয়ে বেশি সাহায্য দিয়ে আসছে তুরস্ক। আফ্রিকায় সৌদি আরব ও আরব আমিরাতের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে প্রভাব রাখতে চায় আঙ্কারা। তুর্কি প্রকৌশলীরা সোমালিয়ায় সড়ক তৈরি করছিলেন।

এদিকে, তুর্কি সংবাদ সংস্থা আনাদোলু জানিয়েছে, সোমালিয়ার রাজধানীর পাশে শাবেলে অঞ্চলে একটি মিলিটারি ঘাঁটিতে হামলা চালায় আল শাবাব। সোমালি জেনারেল মোহাম্মদ আহমেদ তারেদিশের বরাত দিয়ে সংবাদ সংস্থাটি বলছে, হামলা ও পাল্টা হামলায় চার সেনা ও ৪০ জন শাবাব সদস্য নিহত হয়েছেন।

সোমালিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় পরে এ নিয়ে একটি বিবৃতিও প্রকাশ করে। সূত্র : ডয়চে ভেলে।


আরো সংবাদ