০৬ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯, ৯ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

অযথা দ্রব্যমূল্য বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী

অযথা দ্রব্যমূল্য বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা : তথ্যমন্ত্রী - ছবি : সংগৃহীত

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর অজুহাতে অযথা পণ্যের দাম বা পরিবহন ভাড়া বাড়ানো হলে সরকার কঠোর ব্যবস্থা নেবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ডা. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেছেন, জ্বালানির সাম্প্রতিক দাম বৃদ্ধিকে সুবিধা হিসেবে নিয়ে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী তাদের মুনাফা বাড়াতে পণ্যের দাম ও পরিবহন খরচ বাড়িয়েছে।

বুধবার বাংলাদেশ সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এটি (অযৌক্তিক মূল্যবৃদ্ধি) কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। আমাদের সরকার এগুলো মনিটরিং করছে এবং আশা করি ব্যবসায়ী সংগঠন ও নেতারা এ ব্যাপারে ভূমিকা রাখবেন। প্রয়োজনে সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে।’

নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বাম জোটের ডাকা হরতাল (হরতাল) বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান বলেন, বিশ্বজুড়েই উচ্চ মূল্যস্ফীতি রয়েছে।

এ সময় গণতান্ত্রিক বাম জোটের হরতাল কর্মসূচির লাভ যেন বিএনপি নিজের ঘরে না তুলতে পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে বাম নেতাদের অনুরোধ করেছেন তিনি।

এই আওয়ামী নেতা বলেন, ‘বাম ভাইয়েরা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি। এ কারণে আমি তাদের সম্মান করি। কিন্তু বাম ভাইরা হরতাল ডেকেছেন, যে কেউ প্রতিবাদ করতে পারেন। গণতান্ত্রিক নিয়ম মেনে যে কেউ প্রতিবাদ করতে পারেন। কিন্তু বাম ভাইদের আমি বিনীত অনুরোধ করবো তাদের কর্মকাণ্ডে যেন স্বাধীনতা বিরোধী, জঙ্গিগোষ্ঠি এবং দেশবিরোধী অপশক্তি বিএনপিসহ যেন অন্যরা লাভবান না হয়। তাদের হাতে যেন দেশটা চলে না যায়, সেভাবেই তারা তাদের কর্মকাণ্ড করবেন এটাই আমার অনুরোধ।

জ্বালানি তেলের দাম কমানোসহ কয়েকটি দাবিতে আগামী ২৫ আগস্ট দেশজুড়ে অর্ধদিবস হরতাল ডেকেছে গণতান্ত্রিক বাম জোট। মঙ্গলবার শাহবাগে এক সমাবেশ থেকে এ কর্মসূচির ঘোষণা করা হয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি যেসব গুমের কথা বলে কিছুদিন পরে দেখা যায় তাদের খুঁজে পাওয়া যায়। বিএনপি যে গুমের তথ্য প্রকাশ করে এগুলো যে সঠিক নয় এতে সেটিই প্রমাণ হয়। বাংলাদেশে যারা অগ্নি সন্ত্রাস করেছে, মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে আমি মনে করি যে আজকের দিনের দাবি হচ্ছে যে, ২০১৩-১৪ সালে যারা ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য বা সরকারকে টেনে হিঁচড়ে নামানোর জন্য যেভাবে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে, এগুলোর দ্রুত বিচার হওয়া প্রয়োজন।

ন্যায় প্রতিষ্ঠার জন্য অগ্নিসন্ত্রাস করেছে, অগ্নিবোমা মানুষের ওপর নিক্ষেপ করেছে তাদেরকে মদদ দিয়েছে যেসব বিএনপি নেতারা তাদের দ্রুত বিচার হওয়া প্রয়োজন। দ্রুত বিচার না হলে ন্যায় প্রতিষ্ঠা হবে না, এটাই আজকের দাবি হওয়া উচিৎ।’

সূত্র : ইউএনবি


আরো সংবাদ


premium cement