০২ এপ্রিল ২০২০

কুড়িগ্রামের ডিসি প্রত্যাহার, বিভাগীয় মামলার সিদ্ধান্ত

গভীর রাতে বাড়ি থেকে নিয়ে গিয়ে সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে আটক ও পরে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের ঘটনায় কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোছা. সুলতানা পারভীনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। আজ রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা জানান।

এর আগে তিনি জানান, এ ঘটনায় শক্ত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সাংবাদিক আরিফকে দায়মুক্ত করতে কাজ করা হচ্ছে। এর মধ্যে তার জামিন হয়েছে।

জানা গেছে, কুড়িগ্রামের স্থানীয় সাংবাদিক আরিফুল ইসলামকে গত শুক্রবার মধ্যরাতে বাড়ি থেকে ধরে এনে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট। মধ্যরাতে মাদকবিরোধী টাস্কফোর্সের অভিযানে আরিফুল ইসলামকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সাজার ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেন স্থানীয়রা।

ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার জন্ম দেয়। এতে বিব্রত হয় জনপ্রশাসন ও মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ। তারা বিষয়টি তদন্তের জন্য বিভাগীয় কমিশনারকে মৌখিক নির্দেশনা দেন।

নির্দেশনা অনুযায়ী বিভাগীয় কমিশনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) আবু তাহের মো: মাসুদ রানাকে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে তদন্তের জন্য প্রেরণ করেন। এক দিনেই তদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য নির্দেশনা দেন বিভাগীয় কমিশনার।


আরো সংবাদ