০২ এপ্রিল ২০২০

করোনা মোকাবেলায় ১০০ কোটি টাকা পেল স্বাস্থ্য বিভাগ

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ১০০ কোটি টাকা ছাড় করেছে অর্থ বিভাগ। জরুরিভিত্তিতে এই অর্থ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে গতকাল দেয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

বলা হয়েছে, আকস্মিক দুর্যোগ মোকাবেলার অংশ হিসেবে আপৎকালীন তহবিল হিসেবে জরুরিভিত্তিতে এ অর্থ ছাড় করে প্রান্তিকপর্যায় পর্যন্ত ব্যবহারের উপযোগী করতে এই অর্থ প্রদান করা হলো। এর আগে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় জরুরি ভিত্তিতে অর্থ ছাড়ের জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের কাছে অনুরোধ করে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছিল।

অর্থ বিভাগে পাঠানো স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের এ সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ করোনাভাইরাস প্রতিরোধ সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য ‘কোভিড-১৯’ এর চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

ইতোমধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং জেলা-উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে উপদেষ্টা করে দু’টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধ এবং রোগীদের সারিয়ে তুলতে কোভিড-১৯ আক্রান্তদের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখতে হয়। তাই দেশের সব জেলা, জেনারেল, বিশেষায়িত হাসপাতালসহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালগুলোতে কোরোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

এ জন্য ঢাকাসহ বিভাগীয় শহর এবং জেলা শহরের হাসপতালগুলোতেও সিসিইউ, আইসিইউ, আইসোলেশন ওয়ার্ড, সহায়ক স্বাস্থ্য সেবা, করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য কিট এবং বিভিন্ন যন্ত্রপাতি কেনার জন্য জরুরি পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে এ খাতের জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রয়োজন। এই অর্থ যেন দ্রুত ছাড় করা হয়।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, জরুরি পরিস্থিতি বিবেচনা করে গতকালই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জন্য ১০০ কোটি টাকা ছাড় করেছে অর্থবিভাগ। চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবালয় অংশের সাধারণ থোক বরাদ্দ থেকে এ অর্থ ছাড় করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সব ধরনের পরিস্থিতির জন্য আমরা তৈরি আছি। ভাইরাস মোকাবেলায় ও এর দ্বারা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য অর্থের কোনো অভাব হবে না। অর্থের আরো প্রয়োজন হলে আমরা তা ছাড় করতে প্রস্তুত রয়েছি।


আরো সংবাদ