২৫ অক্টোবর ২০২০

স্লোভেনিয়ায় অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে বাংলাদেশীসহ ১১৩ অভিবাসী আটক

১১৩ জন অভিবাসীকে আটক করেছে স্লোভেনিয়া পুলিশ - ছবি : সংগৃহীত

মধ্য ইউরোপের দেশ স্লোভেনিয়ায় অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে সোমবার ১১৩ জন অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের বেশিরভাগই বাংলাদেশি এবং পাকিস্তানি। দেশটির পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

স্লোভেনিয়ার পুলিশ প্রশাসনের মুখপাত্র আনিকা লেস্কোভিচ দেশটির স্থানীয় এক গণমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, স্লোভেনিয়ায় এর আগে কখনো এক দিনে এক সাথে এতো বেশি অবৈধ অভিবাসীদেরকে আটক করার ঘটনা ঘটেনি। যেহেতু স্লোভেনিয়া এবং ক্রোয়েশিয়ার সীমান্তবর্তী শহর ইলিরস্কা বিস্ট্রাসে এ ঘটনাটি ঘটেছে, তাই ধারণা করা হচ্ছে, এসব অবৈধ অভিবাসীর বেশিরভাগই ক্রোয়েশিয়া থেকে স্লোভেনিয়া হয়ে ইউরোপের অন্যান্য দেশ বিশেষকরে ইতালি, স্পেন, ফ্রান্সে পৌঁছানোর জন্য মূলত রুটটি ব্যবহার করতে চেয়েছিলেন।

অন্যদিকে এ ঘটনায় স্লোভেনিয়ার জনসাধারণের মাঝে এক ধরণের আতঙ্ক বিরাজ করছে। স্লোভেনিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলেস হোস জানিয়েছেন, এক সাথে এতো বেশি সংখ্যক অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে আটক করার মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয় স্লোভেনিয়াসহ আশেপাশের দেশগুলোকে ঘিরে মানবপাচারের একটি সুবিশাল চক্র গড়ে উঠেছে।

এর আগেও গত সপ্তাহে স্লোভেনিয়ার অন্য একটি সীমান্তবর্তী শহর সেলইয়েতে এক লরী থেকে ৩৪ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়।

স্লোভেনিয়ার পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিগত আট মাসে দেশটিতে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে সর্বমোট ১০ হাজার ২২৩ জনকে আটক করা হয়েছে, যা বিগত বছরের তুলনায় ৩.৩ শতাংশ বেশি।

উল্লেখ্য, স্লোভেনিয়ার পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রকাশিত পরিসংখ্যান থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী সাম্প্রতিক সময়ে দেশটিতে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে আটককৃতদের বেশিরভাগই বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং মরোক্কোর নাগরিক।


আরো সংবাদ