১৯ জানুয়ারি ২০২১
`

ঢাকা-আরিচা, ঢাকা টাঙ্গাইল মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট

ঢাকা-আরিচা, ঢাকা টাঙ্গাইল মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট - ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীতে থেকে বের হওয়ার প্রধান দুটি মহাসড়কে শুক্রবার ভোর থেকে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। অব্যবস্থাপনা ও বিশৃঙ্খলার কারণে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে বৃহস্পতিবার গভীর রাত থেকে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত তিন ঘণ্টা ফেরিতে যানবাহন ওঠানামা বন্ধ ছিল। এ ছাড়া যাত্রী ও যানবাহনের অস্বাভাবিক চাপের কারণে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত থেকে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। শুক্রবার সকাল ১০টার দিয়ে ঘাট এলাকা ছেড়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে প্রায় ২০ কিলোমিটার পর্যন্ত যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন ঈদে ঘরমুখী হাজারো মানুষ।

এদিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের মির্জাপুরের গোড়াই থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত ৬৫ কিলোমিটার এলাকাজুরে থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। শুক্রবার ভোর থেকে এ পরিস্থিতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর এসেছে।

ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে যানজট
দীর্ঘ সময় ফেরিতে যানবাহন পারাপার বন্ধ থাকায় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে আজ ভোর থেকে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। পাটুরিয়া ঘাট এলাকা থেকে মানিকগঞ্জের তরা সেতু পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার যানজটে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা।

বরঙ্গাইল হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ঈদের ঘরমুখী যাত্রীবাহী বিভিন্ন যানবাহনের চাপ বেড়ে যায়। নদী পারাপারের যাত্রীবাহী বাসের চেয়ে লোকাল বাসের চাপ বেশি। এসব গাড়ি পাটুরিয়ায় যাত্রী নামিয়ে আবার ঢাকার দিকে রওনা দেওয়ার সময় এলোপাতাড়িভাবে চলাচলের কারণে পথ আটকে যায়। এ ছাড়া কোরবানির পশুবাহী গাড়ির কারণেও মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

বরঙ্গাইর পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাসুদেব সিনহা বলেন, পাটুরিয়ায় ফেরিতে যানবাহন পারাপারে বিঘ্ন এবং অতিরিক্ত গাড়ির চাপের কারণে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। আজ সকাল নয়টা পর্যন্ত পাটুরিয়া থেকে তরা পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত এই যানজট বিস্তৃত ছিল। তবে এরপর থেকে যানজট কমে আসতে শুরু করেছে।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট
এই ঈদে মহাসড়কে পশুবাহি ট্রাক ও যাত্রীবাহি বাসের সংখ্যা কয়েকগুণ বেড়ে গেছে। এছাড়া বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল প্লাজা ৮৯ মিনিট বন্ধ থাকার কারণেই এ মহাসড়কে থেমে থেমে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ঈদে ঘরমুখো মানুষের সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মির্জাপুরের পাকুল্যা, নাটিয়াপাড়া, করটিয়া, তারুটিয়া, রাবনা পাইপাস ও এলেঙ্গা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত।

টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় জানান, মহাসড়কে যানবাহনের সংখ্যা স্বাভাবিকের তুলনায় কয়েকগুণ বেড়ে গেছে। এতে করে বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর চাপ কমানোর জন্য টোল প্লাজা ৮৯ মিনিট বন্ধ রাখা হয়। এ কারণে এ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। তবে পুলিশ সর্বাত্মক কাজ করে যাচ্ছে। আগামী দুই তিন ঘণ্টার মধ্যে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

 



আরো সংবাদ