৩১ মার্চ ২০২০

করোনার প্রকৃত তথ্য গোপন করছে সরকার : রিজভী

-

দেশে করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের প্রকৃত তথ্য সরকার গোপন করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের প্রকৃত তথ্য গোপন করছে সরকার। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে, প্রাণঘাতী এই করোনা ভাইরাস নিয়ে সরকারের কোনো মাথাব্যথা ও দায়িত্ববোধ নেই।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর ফার্মগেট এলাকায় করোনা ভাইরাস নিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে দলীয় লিফলেট বিতরণকালে এসব কথা বলেন রিজভী।

দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর ফার্মগেট এলাকার সেজান পয়েন্ট থেকে শুরু করে আশেপাশের এলাকায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লিফলেট বিতরণ কর্মসূচির আয়োজন করে বিএনপিপন্থী কৃষিবিদদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব এগ্রিকালচারিস্ট বাংলাদেশ (এএবি)।

এ সময় এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রিজভী বলেন, বর্তমান সরকার করোনা ভাইরাস নিয়ে জনগণের কল্যাণ না করে শুধু লিপ সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছে। তারা এদেশের মানুষকে বিপদের মুখে ঠেলে দিয়েছে।

রিজভী বলেন, ইউরোপ, আমেরিকা ও মধ্যপ্রাচ্যে যদি করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে তো বাংলাদেশ কী এর বাইরে যাবে? বাংলাদেশ এমনিতেই জনবহুল দেশ। সুতরাং সরকার কোনো কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ না করে শুধু লিপ সার্ভিস দিচ্ছে। এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা বাড়াতে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা নির্ধারণ করে ব্যাপক প্রচারণা চালানো জরুরি। তা না হলে কঠিন এবং ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হবে।

তিনি আরো বলেন, রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি সবসময়ই যেকোনো দুর্যোগে জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে। এখনো প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করতে লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে। আমাদের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা সবাই জনগণের পাশে দাঁড়াবেন। ইতোমধ্যে ঢাকাসহ সারা দেশে গণজমায়েত স্থগিত করে লিফলেট বিতরণ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

রিজভী বলেন, গতবছর সারা বাংলাদেশে ডেঙ্গু ছড়িয়েছিল। আমরা সেসময় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছিলাম। সেসময় সরকারের লোকজন বললো, বিএনপি নাকি গুজব ছড়ায়। আমরা বলতে চাই, গুজব নয় বরং আপনাদের হুঁশিয়ার করে দিই। যেহেতু সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়, সুতরাং তাদের প্রতি জনগণের কোনো আস্থাও নেই। আজকে দেশে গণতন্ত্র নেই বলেই তারা এসব করছে। তারা করোনা নিয়ে উদাসীন। আমরা তাদের কর্মকাণ্ডে উদ্বিগ্ন ও আতঙ্কিত।

গণতন্ত্রের স্বার্থে এই মুহূর্তে বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।

এসময় বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক মীর সরফত আলী সপু, আয়োজক সংগঠনের নেতা রাশিদুল হাসান হারুন ও বিএনপির সহ প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, যুবদলের সাবেক নেতা নূরুল ইসলাম সহ শতাধিক নেতাকর্মী লিফলেট বিতরণে অংশগ্রহণ করেন।


আরো সংবাদ