০৮ আগস্ট ২০২০

সঠিক সময়ে মশার ওষুধ আনতে না পারার কারণ জানালেন মেয়র আতিকুল

সঠিক সময়ে মশার ওষুধ আনতে না পারার কারণ জানালেন মেয়র আতিকুল - ছবি : সংগৃহীত
24tkt

রাজধানী ঢাকায় এডিস মশা তথা ডেঙ্গুর ব্যাপক বিস্তারের কারণ জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি উত্তর করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, একটি স্বার্থান্বেষী মহলের কারণেই মূলত আমরা সঠিক সময়ে মশার ওষুধ আমদানি করতে পারিনি। তিনি আরো স্পষ্ট করে বলেন, সরকারের উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইং একটি বিজ্ঞপ্তির ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে দীর্ঘদিন মশার ওষুধ আমদানি আটকে রেখেছিল। আর সে কারণে রাজধানীতে মশার বিস্তার ও ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাবও ব্যাপকভাবে বেড়ে গিয়েছিল।

শনিবার এক গোলটেবিল আলোচনায় এই অভিযোগ তোলেন মেয়র আতিক।

ডিএনসিসি’র মেয়র বলনে, সারা বিশ্বে সবাই মশার ওষুধ কিনতে পারনে এবং তা প্রয়োজনমতো ব্যবহারও করতে পারনে। কিন্তু ‘আমাদের সিটি করপোরেশনের পক্ষে এখনো এটা সম্ভব হচ্ছে না কিছু স্বার্থান্বেষী মহলরে কারণে। তিনি বলেন, এই মহলটি পুরো বাংলাদশেকে কব্জা করে রেখেছিল। উদ্ভিদ সংরক্ষণ উইং সরকাররে একটি বিজ্ঞপ্তরি ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে ওষুধ আমদানি আটকে রখেছেলি।

শনিবার সকালে কালের কণ্ঠ পত্রিকা আয়োজিত ‘মশা নিয়ন্ত্রণ ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওরিয়ন ফার্মার সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আরিফ হোসেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচবি মো. হাবিবুর রহমান খান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ, ডিএনসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন, ডিএসসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শরীফ আহমেদ প্রমূখ।

উল্লেখ্য এবছর ডেঙ্গুর প্রার্দুভাবের পর ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মশা নিধনরে ওষুধের অকার্যকারিতা ধরা পড়ে। পরে তড়িঘড়ি করে নতুন ওষুধ আনা হলেও ততদিনে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা র্অধ লক্ষ ছাড়িয়ে যায়, মৃত্যুর সংখ্যাও শত ছাড়ায়। বাংলাদেশে যে কোনো কীটনাশক আনার ক্ষেত্রে কৃষি বিভাগের ছাড়পত্রের প্রয়োজন হয়। কেননা ওই কীটনাশকের ব্যবহার উদ্ভিদের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে কি না, তা পরীক্ষা করে দেখার দায়িত্ব তাদের। মেয়র আতকুল ইসলাম অভিযোগ করনে, উদ্ভিদ সংরক্ষণ শাখার ‘প্রতিবন্ধকতা’ তৈরির কারণেই মশার ওষুধ আমদানিতে জটিলতা দেখা দেওয়ায় ডেঙ্গু এবছর প্রকট আকার ধারণ করে।


আরো সংবাদ

প্রদীপের অপকর্ম জেনে যাওয়ায় জীবন দিতে হয়েছে সিনহাকে? (২৬৬১১)পাকিস্তানের বোলিং তোপে লন্ডভন্ড ইংল্যান্ড (৬৫০৩)এসএসসির স্কোরের ভিত্তিতে কলেজে ভর্তি হবে শিক্ষার্থীরা (৪৫২৮)কানাডায়ও ঘাতক বাহিনী পাঠিয়েছিলেন মোহাম্মাদ বিন সালমান! (৪৪৮৪)বিশ্বের সবচেয়ে বড় মিথানল উৎপাদন কারখানা উদ্বোধন করল ইরান (৪০৯৯)অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ নিয়ে কড়া বিবৃতি পাকিস্তানের, যা বলছে ভারত (৪০৪৫)মেজর সিনহা হত্যা : ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ ৭ পুলিশ বরখাস্ত (৩৬৫২)কক্সবাজারে সেনাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ টহল চলবে : আইএসপিআর (৩৩৩২)যুক্তরাষ্ট্র নির্বাচন ২০২০ : কে এগিয়ে- ট্রাম্প না বাইডেন? (৩১০৫)প্রদীপসহ ৩ পুলিশ সদস্যের ৭ দিনের রিমান্ড (৩০৮৮)