০৫ ডিসেম্বর ২০২০

পর্তুগালে বেড়েছে অপরাধের হার

পর্তুগালে বেড়েছে অপরাধের হার - সংগৃহীত

২০১৮ সাল থেকে ২০১৯ সালে পর্তুগালে বেড়েছে তুলনামূলক অপরাধের হার। সহিংস এবং মারাত্মক অপরাধ বেড়েছে আগের বছরের তুলনায় ৩ ভাগ বেশি এবং সাধারণ অপরাধ বেড়েছে ০.৭ ভাগ বেশি।

বার্ষিক অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা রিপোর্ট (আরএএসআই) তাদের ২০১৯ সালের রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। যেখানে দেখা যায় তুলনামূলক অপরাধ প্রবণতা বেড়েছে পর্তুগালে। আগের বছরের তুলনায় অপরাধ রেজিস্ট্রার করা হয়েছে ২,৩৯১টি বেশি। অর্থাৎ ২০১৯ সালে সাধারণ অপরাধ রেজিস্ট্রার করা হয়েছিল ৩,৩৫,৬১৪টি এবং ২০১৮ সালে ৩,৩৩,২২৩টি। শতকরা হিসাবে ০.৭ ভাগ বেশি। অন্যদিকে ২০১৯ সালে সহিংস এবং মারাত্মক অপরাধ রেজিস্ট্রার করা হয়েছে ১৪,৩৯৮টি যা আগের বছরের তুলনায় ৪১৭টি বেশি অর্থাৎ আগের বছর ছিলো ১৩,৯৮১টি। শতকরা হিসাবে ৩ ভাগ বেশি।

মারাত্মক ও সহিংস অপরাধের মধ্যে, বাণিজ্যিক ও শিল্প ভবনগুলিতে চুরির অপরাধ বেড়েছে ২৯.৮ শতাংশ। ২০১৮ সালে ৩২৬ এবং ২০১৯ সালে ৪২৩টি। অপহরণ ও জিম্মি গ্রহণের অপরাধ বেড়েছে ২৩.৮ শতাংশ। ২০১৮ সালে ২৭৩টি এবং ২০১৯ সালে ছিলো ৩৩৮টি। সরকারি রাস্তায় চুরির অপরাধও বেড়েছে ১১.৮ শতাংশ। ২০১৮ সালে ছিলো ৫,২৯৬টি এবং ২০১৯ সালে ৫৯২৩টি ঘটনা ঘটেছিল।

২০১৯ সালে ধর্ষণের মামলা রেজিস্ট্রার করা হয়েছে ৪৩১টি যা তার আগের বছর ছিলো ৪২১টি। শতকরা ২ ভাগ বেশি।

সাধারণ অপরাধগুলোর মধ্যে কম্পিউটার এবং যোগাযোগ জালিয়াতি ছিলো তুলনামূলক বেশি। ২০১৯ সালে রেজিস্ট্রার করা হয়েছে ১৬ হাজার ৩০১টি যা তার আগের বছর ছিলো ৯ হাজার ৭৮৩টি। আভ্যান্তরীণ গোলোযোগের ঘটনা ছিলো ২০১৮ সালে ২,২৪২টি এবং ২০১৯ সালে ২,৪৭৯টি।

তবে অপরাধ কমেছে পকেটচুরি, বাড়ির জানালা ভেঙে চুরি এবং নকল চাবি দিয়ে মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা।

২০১৮ সালের চেয়ে ২০১৯ সালে পর্তুগালে কোকেইন আটক করা হয়েছে প্রায় ৭৫.২ ভাগ বেশি, তবে হেরোইন এবং হাসিস একটাসির তুলনামূলক আগের বছরের চেয়ে অনেক কম আটক হয়েছে।

পর্তুগালে সবচেয়ে বেশি অপরাধ বেড়েছে ব্রাগানসা, ভিছু, ভিসা রিয়েল, পর্তালেগ্রে জেলায়। তবে অপরাধ কমেছে ফারো জেলায়।


আরো সংবাদ

সকল