২৬ নভেম্বর ২০২০

দীর্ঘদিন কোমায় থেকে না ফেরার দেশে মেধাবী ছাত্র আনাস

আবতাহি সিদ্দিকী আনাস - ছবি : সংগৃহীত

দীর্ঘদিন কোমায় থেকে না ফেরার দেশেই চলে গেল মেধাবী ছাত্র আনাস। আবুধাবী মেরিল্যান্ড স্কুলের ছাত্র আবতাহি সিদ্দিকী আনাস গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় আবুধাবির সিলা সেন্ট্রাল হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

২০১৭ সালের ১৮ এপ্রিল আরব আমিরাতে বসবাসরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নবম শ্রেণীর ছাত্র আবতাহি সিদ্দিকীর জীবন চিরদিনের জন্য বদলে যায়। আবুধাবির শিল্পনগরী মুসাফ্ফা আবাসিক এলাকায় কোচিং করে বাসায় ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে কোমায় চলে যায়। আবুধাবির বিশেষায়িত মাফরাক হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন থাকার এক বছর পর হাসপাতালের লংটার্ম কেয়ার ইউনিটে রাখা হয়। সর্বশেষ আবুধাবি সৌদি সীমান্তবর্তী সিলা সেন্ট্রাল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে তার শারীরিক অবস্থা গ্লাসগো কোমা স্কেলের সপ্তম স্কেলে ছিল। হাসপাতালে তাকে নিয়মিত ফিজিওথেরাপিসহ সব ধরনের চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, মস্তিষ্কের নার্ভাস সিস্টেমের এই সংকট থেকে চিকিৎসার মাধ্যমে স্বাভাবিক অবস্থায় উত্তরণ সহজসাধ্য ছিল না।

দীর্ঘ তিন বছর দুই মাস কোমায় থেকে বৃহস্পতিবার সকালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করে ১৭ বছর বয়সী আনাস।

দুই ভাইয়ের মাঝে আনাসে ছিল বড়। অত্যন্ত বিনয়ী ও মেধাবী ছাত্র আনাসের সুস্থতার জন্য তার স্কুলে দুর্ঘটনার পর থেকেই নিয়মিত প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছিলো। তার মৃত্যুতে দেশী-বিদেশী শিক্ষক-ছাত্রসহ বাংলাদেশ কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে আসে।

আনাস আবুধাবির মোসাফফাহ ডায়মন্ড সিটি রেস্টুরেন্ট ও কার্গো এশিয়ার স্বত্বাধিকারী এবং কার্গো অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ব্যবসায়ী নুরুল আবছারের জ্যৈষ্ঠ পুত্র। প্রবাসী নুরুল আবছার দেশের বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার রাউজান উপজেলার নোয়াপাড়ায়।


আরো সংবাদ