০৪ এপ্রিল ২০২০

তরুণীকে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় দুবাইয়ে ৪ বাংলাদেশীর নামে মামলা

সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) ইন্দোনেশিয়ান এক তরুণীকে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় চার বাংলাদেশিসহ সাতজনের বিরুদ্ধে দুবাই সুপ্রিমকর্টে মানবপাচারের অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। অভিযুক্ত সাত আসামির মধ্যে চার বাংলাদেশী ছাড়াও দুই ইন্দোনেশিয়ান নারী ও এক পাকিস্তানী পুরুষ রয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) দুবাইয়ের একটি আদালতে এ বিষয়ে দায়ের করা মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়। শনিবার (১ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সংবাদমাধ্যম খবরটি দিয়েছে।

আদালতের শুনানিতে ৩০ বছর বয়সী ওই ইন্দোনেশিয়ান তরুণী অভিযোগ করেন, একটি কোম্পানির মাধ্যমে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে দুবাই আসেন তিনি। শুরুতে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ শুরু করেন। যে পরিবারে তিনি কাজ করতেন সেখানে নির্যাতনের শিকার হলে একপর্যায়ে তিনি সেখান থেকে পালিয়ে যান।

পরবর্তীতে ফেসবুকে গৃহকর্মী নিয়োগের বিজ্ঞাপন দেখেন তিনি। পরে ওই বিজ্ঞাপন দাতাদের নিকট যোগাযোগ করলে নিজ দেশের (ইন্দোনেশিয়া) এক নারীর সঙ্গে কথা হয় তার।

অভিযুক্ত নারী ভুক্তভোগী ও তরুনীকে জানায়, একটি আমিরাতি পরিবারে গৃহকর্মী দরকার। এজন্য পাকিস্তানী আসামির সঙ্গে তাকে কথা বলতে বলেন সেই নারী। ওই তরুণী বলেন, স্বদেশী নারীর কথা মত আমি পাকিস্তানী লোকটির সঙ্গে কথা বলি। তখন কর্মস্থলের মালিককে দেখানোর জন্য আমাকে ছবি দিতে বলেন। কয়েকদিন পর পাকিস্তানী লোকটি আমাকে একটি বাগানবাড়িতে নিয়ে যায়।

সেখানে উপস্থিত অন্য আসামিরা জানায় যে, পাকিস্তানী লোকটি আমাকে বিক্রি করে দিয়েছে। সুতরাং আমাকে বাধ্যতামূলক যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করতে হবে। তাদের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলে আসামিরা ওই বাগানবাড়িতে আমাকে তালাবাদ্ধ করে রেখে যায়। আমি সেখান থেকে পালানোর বহু চেষ্টা করেও পালাতে পারিনি। কয়েকদিন পর তারা আমাকে সিমকার্ড ছাড়া একটি মোবাইল ফোন দেয়। পরে আমি কোনোমতে ওয়াইফাই সংযোগ যুক্ত করে অনলাইনের মাধ্যমে দুবাইয়ে গৃহকর্মী হিসেবে কর্মরত আমার বোনকে খবর দিই।

তরুণী জানান, তার বোন খবর পেয়ে দুবাই পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ সেই বাগানবাড়িতে অভিযান চালিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় অভিযুক্ত পাকিস্তানী লোকটিকে আটক করা হয়েছে। তরুণীকে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগের ব্যাপারে তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। তার নিকট থেকে তথ্য নিয়ে বাকি ৬ আসামির তথ্য সংগ্রহ করে গ্রেফতারের প্রস্তুতি চলছে। আসামিদের বিরুদ্ধে মানবপাচার, পতিতালয় চালানো এবং তরুণীকে ঘরে আটকে রাখাসহ বিভিন্ন অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।


আরো সংবাদ

আত্মহত্যার আগে মায়ের কাছে স্কুলছাত্রীর আবেগঘন চিঠি (১৩৫৩০)সিসিকের খাদ্য ফান্ডে খালেদা জিয়ার অনুদান (১২৬০৬)করোনা নিয়ে উদ্বিগ্ন খালেদা জিয়া, শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল (৯৩১৫)ভারতে তাবলিগিদের 'মানবতার শত্রু ' অভিহিত করে জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রয়োগ (৮৪৯০)করোনায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল ইতালির একটি পরিবার (৭৮৬৪)করোনার মধ্যেও ইরান-যুক্তরাষ্ট্র আরেক যুদ্ধ (৭১৪০)করোনায় আটকে গেছে সাড়ে চার লাখ শিক্ষকের বেতন (৬৯৩১)ইসরাইলে গোঁড়া ইহুদির শহরে সবচেয়ে বেশি করোনার সংক্রমণ (৬৮৯০)ঢাকায় টিভি সাংবাদিক আক্রান্ত, একই চ্যানেলের ৪৭ জন কোয়ারান্টাইনে (৬৭৬১)করোনাভাইরাস ভয় : ইতালিতে প্রেমিকাকে হত্যা করল প্রেমিক (৬২৯৬)