১৭ নভেম্বর ২০১৯

আবরার হত্যার প্রতিবাদে নিউইয়র্কে বিক্ষোভ সমাবেশ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে নিউইয়র্কে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে নিউইয়র্কস্থ নাগরিক সমাজ। শনিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় এ সমাবেশ করে নাগরিক সমাজের নেতৃবৃন্দ। এসময় বক্তারা বলেন আবরার ফাহাদের হত্যা বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বেও বিরুদ্ধে বড় আঘাত। বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব আজ চূড়ান্তভাবে হুমকির সম্মুখীন। গণতন্ত্রেও অনুপুস্থিতি বর্তমান সরকারকে ক্ষমতায় টিকিয়ে রাখবার বিনিময়ে পুরো দেশকে দখলে নিতে চায় প্রতিবেশী দেশ ।

এসময় বক্তারা ভারতের সাথে দেশ বিরোধী সকল চুক্তি বাতিলের দাবী জানান । মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ খন্দকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন লং আইল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক ড. শওকত আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা অবসরপ্রাপ্ত মেজর ড. ওয়াজি উল্লাহ, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট গিয়াস আহম্মেদ ,ইন্টারন্যাশনাল ক্যাম্পেইন ফর রেস্টোরিং ডেমোক্রেসি ইন বাংলাদেশ-এর নির্বাহী পরিচালক ইমরান আনসারী, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট জসীম ভূইয়া, কমিউনিটি এক্টিভিস্ট হুসনে আরা বেগম, শাহাদাত হোসেন রাজু প্রমূখ।

ড. শওকত আলী বলেন, আমি আমেরিকার অর্থনীতিবিদের তত্ত্বকে ভূল প্রমাণ কওে এদেশ থেকে পিএইচডি ডিগ্রী নিয়েছি। কিন্তু আমেরিকানরা আমাকে হত্যা করেনি বরং চাকুরি দিয়েছে। আজ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিন্নমত পোষনের কারণে আবরার জীবন দিতে হয়েছে। যা জাতির জন্য দুর্ভাগ্যা।

ড. ওয়াজি উল্লাহ বলেন, আমি আওয়ামী লীগের সমর্থক তারপরও আমি এ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানাই , অবিলম্বে খুনীদের বিচারের আওতায় আনতে হবে।

গিয়াস আহম্মেদ বলেন, বাংলাদেশকে ভারতের করদ রাজ্য বানানোর অংশ হিসেবেই আবরার ফাহাদকে হত্যা করা হয়েছে। বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে যেকোনো চক্রান্তের বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাঁড়াতে হবে।

মানবাধিকারকর্মী ইমরান আনসারী বলেন, আবরার ফাহাদেও হত্যাকান্ড বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে চলমান যড়যন্ত্রের একটি পরিকল্পতা ঘটনা। এই হত্যাকান্ডের মাধ্যমে বাংলাদেশের জনগনের কণ্ঠকে চিরতওে স্তিমিত করার প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার সমর্থক ছাত্র সংগঠন । এসময় তিনি বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার লক্ষ্যে বেগম জিয়ার মুক্তির আন্দোলন ত্বরান্বিত করার আহ্বান জানান।

জসীম ভূঁইয়া বলেন, ফেনির বাসিন্দা হিসেবে তিনি উদ্বিগ্ন ফেনি নদীর পানি উত্তোলন করা হলে ওই এলাকার কৃষি ব্যবস্থা মারাত্মক হুমকির মূখে পড়বে।  তিনি অবিলম্বে দেশ বিরোধী সকল চুক্তি বাতিলের দাবী জানান।


আরো সংবাদ

মাঠ সংস্কার উদ্বোধনে হাজী সেলিম অনুসারীদের হট্টগোল! চারুকলায় উৎসবে নবান্নকে বরণ ‘সুস্থ জীবনযাপনে মহানবীর জীবন অনুসরণের বিকল্প নেই’ খেলার মাঠগুলোকে বিশ্বমানের করা হচ্ছে : সাঈদ খোকন কেরানীগঞ্জেই হবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাস : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গার এমপি পদ ও পরিবহনের শীর্ষ পদ থেকে বহিষ্কার দাবি ঐক্যলীগের নতুন বাংলাদেশ গড়তে মুক্তিযোদ্ধাদের এগিয়ে আসতে হবে : জি এম কাদের রাস্তা প্রশস্ত করার খবরে মুগদাবাসীর উদ্বেগ তাঁতি দলের আলোচনা সভা পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধিতে সরকারই জড়িত : গয়েশ্বর সার্বজনীন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান স্পিকারের যুদ্ধবিরতির পরও গাজায় ইসরাইলের বিমান হামলা

সকল