২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

‘লেইনের’ আঘাতের আগেই তীব্র বাতাস ও বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হাওয়াই

-

ঘূর্ণিঝড় ‘লেইন’ আঘাত হানার আগেই তীব্র বাতাস ও মুষলধারে বৃষ্টিতে প্রশান্ত মহাসাগরের হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের অনেক এলাকায় বন্যা ও ভূমিধস দেখা দিয়েছে।

ঝড়ের রোষ থেকে বাঁচতে এরই মধ্যে মার্কিন এ অঙ্গরাজ্যের হাজার হাজার বাসিন্দা আশ্রয়কেন্দ্রে সরে এসেছেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বন্ধ করে দেয়া হয়েছে স্কুল ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কার্যালয়।

হাওয়াইয়ের পথে অগ্রসর হতে থাকা ঝড়টি আগের তুলনায় দুর্বল হয়ে তিন মাত্রার ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে মার্কিন আবহাওয়া বিভাগ।

বিবিসির খবরে প্রকাশ, ‘লেইন’ এর প্রভাবে ঘণ্টায় ১২৫ মাইল বেগে বাতাস ও মুষলধারে বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ভেতর ‘আলোহা রাজ্য’ নামে পরিচিত হাওয়াইয়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন।

ঝড় ও পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউস।

শক্তিমত্তা আগের তুলনায় কমলেও তিন মাত্রার এ ঝড়টি এখনও ‘বিপজ্জনক’ বলে টুইটারে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া বিভাগ (এনডব্লিউএস)। টানা বৃষ্টির কারণে ভয়াবহ বন্যা নিয়েও উদ্বেগ জানিয়েছে তারা।

হাওয়াইয়ের দ্বিতীয় বৃহত্তম দ্বীপ মাউয়ির প্রধান বিমানবন্দরে শুক্রবারের সকল ফ্লাইটের যাত্রা বাতিল করেছে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স।

বিগ আইল্যাণ্ডে আগেই ঘূর্ণিঝড় সতর্কতা জারি করেছিল এনডব্লিউএস। দ্বীপটিতে কেবল বৃহস্পতিবারই ৩০ সেন্টিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে।

ভূমিধসের কারণে অসংখ্য সড়ক বন্ধ হয়ে গেছে; অনেক গাড়িই পানির মধ্যে আটকা পড়েছে বলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিগুলোতে দেখা যাচ্ছে।

হিলোর মতো বিগ আইল্যান্ডের অন্যান্য এলাকার বাসিন্দারাও পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। সতর্কতা হিসেবে যানবাহনের চালকরা গাড়িতে জ্বালানি ভরে নিচ্ছেন বলেও জানিয়েছে অন্য এক সংবাদমাধ্যম।

মাউয়ি, মোলোকি ও লানাই দ্বীপেও হারিকেন সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

বাসিন্দাদের বিশুদ্ধ পানি, খাবার ও ওষুধ মজুদ রাখতে এবং গাড়ি চালানো এড়িয়ে যেতে পরামর্শ দিয়েছেন দ্বীপপুঞ্জটির গভর্নর ডেভিড ইগে।

হাওয়াইয়ের ইতিহাসে এর আগে তিন মাত্রার দুটি ঝড় দ্বীপপুঞ্জের সাড়ে তিনশ মাইলের কাছাকাছি এসেছিল। ১৯৫৯ থেকে এখন পর্যন্ত প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত এ মার্কিন অঙ্গরাজ্যে চারটি ঝড় আঘাত হানে, যার মধ্যে ঘূর্ণিঝড় ছিল দুটি।

স্রোত ও পানির কারণে প্রশান্ত মহাসাগরের কেন্দ্রে খুব কমই ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানে, বেশিরভাগ সময়ই ঝড়গুলো যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বাঞ্চলীয় এলাকার পথে চলে যায়।

এ মাসের শুরুতেও চার মাত্রার শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘হেক্টর’ পাশ কাটিয়ে অন্য পথে চলে গিয়েছিল; সেটি অবশ্য ‘লেইন’ এর মতো হাওয়াইয়ের এত কাছে আসেনি বলে জানিয়েছে বিবিসি।

চলতি বছর বিগ আইল্যান্ডের কিলাউয়ি আগ্নেয়গিরি থেকে নির্গত ছাই ও লাভাতেও মার্কিন এ অঙ্গরাজ্যটি বেশ বিপর্যস্ত ছিল।


আরো সংবাদ