২২ জুন ২০১৮

বন্দুক হামলায় স্বজনদের হারিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে মামলা

গির্জায় বন্দুক হামলার ঘটনায় কান্নায় ভেঙে পড়েছেন নিহতের স্বজনরা - সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে নভেম্বর মাসে একটি গির্জায় নির্বিচারে বন্দুক হামলার ঘটনায় শুক্রবার একটি পরিবার মার্কিন সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। ওই মর্মান্তিক ঘটনায় পরিবারটির তিন প্রজন্মের তিন সদস্য নিহত হন।

খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, সরকার মানুষকে বৈধভাবে আগ্নেয়াস্ত্র রাখার সুযোগ না দিলে এ ঘটনা এড়ানো যেত।

ডেভিন প্যাট্রিক কেলেই টেক্সাসের সুদারল্যান্ড স্প্রিংগস এর ফার্স্ট ব্যাপটিস্ট চার্চে ওই ভয়াবহ হামলা চালিয়ে নির্বিচারে ২৬ জনকে হত্যা ও আরো ২০ জনকে আহত করেন। পারিবারিকভাবে তার ওপর নির্যাতন চালানোর ফলে তার মানসিক সমস্যা দেখা দেয়।
ওই ঘটনায় পরিবারের এক বছর বয়সী নোয়া হোলকোম্বে, তার ফুফু (৩৬) ক্রিস্টাল হোলকোম্বে নিহত হয়। এই ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা এই নারী ও তার তিন সন্তান নিহত হন। হোলকোম্বে পরিবারের নয় সদস্য ওই ঘটনায় প্রাণ হারায়।

জো ও ক্লারিস হোমকোম্বে এই মামলাটি করেন। তাদের বয়স ৮০’র কোটায়। এই ঘটনা তারা তাদের সন্তান, নাতি ও পুতি হারিয়েছেন।


আরো সংবাদ