২৩ জুন ২০১৮

রুশ ক্ষেপণাস্ত্র কিনলে বিপদে পড়বে ভারত!

রুশ ক্ষেপণাস্ত্র কিনলে বিপদে পড়বে ভারত! - ফাইল ছবি

রাশিয়ার কাছ থেকে বিমানবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র এস-৪০০ কিনলে ভারতকে সশস্ত্র ড্রোন বিক্রি করা হবে কি না তা ভেবে দেখবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ভারত সফরে এসে এনডিটিভি-কে এক সাক্ষাত্কারে এমনটাই জানালেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনী সংক্রান্ত হাউজ কমিটির চেয়ারম্যান উইলিয়াম থ্রোনবেরি। তিনি জানিয়েছেন, রাশিয়ার কাছ থেকে এই অস্ত্র কেনার আগে ভারতের তার পরিণতির ব্যাপারে সতর্ক হওয়া উচিত।

এদিন থ্রোনবেরি বলেন, 'ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিবিড় সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করছে। বিশেষ করে সামরিক ক্ষেত্রে দুই দেশের বোঝাপড়া অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। কিন্তু দুই দেশের নৈকট্য আরো বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে। রাশিয়ার কাছ থেকে ভারতের ক্ষেপণাস্ত্র কেনার সিদ্ধান্ত সেই প্রক্রিয়ায় ভবিষ্যতে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে।'

সম্প্রতি সশস্ত্র ড্রোন বিক্রির ব্যাপারে বিধি শিথিল করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। সহযোগী ছাড়াও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের সশস্ত্র ড্রোন বিক্রির ছাড়পত্র দিয়েছে সে দেশের আইনসভা। ভারত রাশিয়ার থেকে ক্ষেপণাস্ত্র কিনলে তাদের এই ড্রোন পেতে সমস্যা হতে পারে বলেও উল্লেখ করেন থ্রোনবেরি। তার যাবতীয় আশঙ্কার কথা তিনি ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন মার্কিন এই প্রতিরক্ষাকর্তা।

গত সপ্তাহেই সোচিতে রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠকে এস-৪০০ কেনার চুক্তি চূড়ান্ত করেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। ৩০০ কিলোমিটার ব্যসার্ধে বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করতে সক্ষম এই অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র। ৪০০০০ কোটি রুপি দিয়ে এই ক্ষেপণাস্ত্র কিনছে ভারত।

তবে মার্কিন কর্তার দাবি, শুধু ভারত নয়, এ ব্যাপারে সমস্ত দেশের জন্য মার্কিন নীতি অভিন্ন।

যুক্তরাষ্ট্রের পথে উ. কোরীয় শীর্ষ জেনারেল
উত্তর কোরিয়ায় এক শীর্ষ জেনারেল যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন। দু'দেশের শীর্ষ সম্মেলনকে সামনে রেখে অনেক বছর পর এই প্রথমবারের মতো উত্তর কোরিয়ার কোন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা বৈরী দেশটিতে সফর করছেন। মঙ্গলবার গণমাধ্যমের খবরে একথা বলা হয়েছে।
দু’দেশই জোরসোরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন এর মধ্যকার বৈঠকের প্রস্তুতি নিচ্ছে। খবর এএফপি’র।

কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা ইয়োনহাপ জানায়, জেনারেল কিম ইয়োং চোল মঙ্গলবার বেইজিং বিমানবন্দরে পৌঁছেন। সেখানে একদিন বিশ্রাম নিয়ে তিনি নিউইয়র্কের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন। বেইজিংয়ে অবস্থানকালে তিনি চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন।

আগামী ১২ জুন সিঙ্গাপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের মধ্যে বহু প্রতীক্ষিত ঐতিহাসিক বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রে পারিবারিক সহিংসতায় ৪ জন নিহত
যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি রাজ্যে পারিবারিক সহিংসতায় সোমবার চারজন নিহত হয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এ কথা জানিয়েছে। খবর সিনহুয়া’র।

রাদারফোর্ড কাউন্টির শেরিফ মাইক ফিজহুহ বলেন, ৩৮ বছর বয়সী এক ব্যক্তি আত্মহত্যার আগে তার স্ত্রী, স্ত্রীর পিতা ও সৎমাকে গুলি করে হত্যা করে। পুলিশ মৃতদেহগুলো উদ্ধার করেছে।
ফিজহুহ বলেন, আত্মহত্যার কথা প্রকাশ করলে ওই ব্যক্তিকে শুক্রবার স্থানীয় এক হাসপাতালে নেয়া হয়। তার বাসস্থান থেকে সকল আগ্নেয়াস্ত্র সরিয়ে ফেলা হয়। তবে সপ্তাহের শেষে ঠিক কি ঘটেছিল সে সম্পর্কে সঠিক কিছু বলা যাচ্ছে না।
মামলাটি পুনঃতদন্ত করা হচ্ছে।

 


আরো সংবাদ