২৪ জানুয়ারি ২০২০

জনসনের জয়ে বিশ্ব নেতাদের প্রতিক্রিয়া

বরিস জনসন
বরিস জনসন - ছবি : সংগৃহীত

ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে বিপুল ব্যবধানে জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি। জয়ের পর প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মাইকেলসহ বিশ্বনেতারা।

ট্রাম্পের অভিনন্দন
নির্বাচনে কনজারভেটিভের বড় জয় নিশ্চিত হওয়ার পর এক টুইট বার্তায় ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ব্রেক্সিটের পর ব্রিটেন ও যুক্তরাষ্ট্র স্বাধীনভাবে নতুন একটি বড় ধরনের বাণিজ্য করতে পারবে। এই চুক্তি অনেক বড় এবং আকর্ষণীয় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ইইউর অভিনন্দন
বরিস জনসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রধান চার্লস মাইকেল। একই সাথে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট দ্রুতই ব্রেক্সিট প্রশ্নে ভোটাভুটিতে যাবে; এমনটিই আশা ব্যক্ত করেছেন তিনি।

শুক্রবার চার্লস মাইকেল বলেন, ইইউ যুক্তরাজ্যের সাথে মুক্তবাণিজ্য চুক্তি নিয়ে আলোচনা করতে প্রস্তুত। লন্ডনকে এ নিয়ে আস্থার সাথে আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি। ইইউ নেতাদের এক সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে মাইকেল সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা আশা করি যত দ্রুত সম্ভব ব্রিটিশ পার্লামেন্ট (ব্রেক্সিট) ভোট অনুষ্ঠান করবে, একটি স্পষ্টতা যত দ্রুত সম্ভব পাওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ।’

রাশিয়ার প্রতিক্রিয়া
‘সব সময়ের মতো অবশ্যই আমরা আশা করি, যেকোনো জাতীয় নির্বাচনে জয়ী রাজনৈতিক শক্তিগুলো রাশিয়ার সাথে সুসম্পর্ক গড়ে তুলতে তাদের মতাদর্শকে আমাদের দেশের সাথে শেয়ার করবে।

কনজারভেটিভদের জয়ে এই ধরনের আশা করা কতটা যৌক্তিক তা আমি জানি না’, সাংবাদিকদের বলেন ক্রিমিয়ার মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ।

অ্যাঞ্জেলার অভিনন্দন
কনজারভেটিভ পার্টির জয়ে বরিস জনসনকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মারকেল। তার মুখপাত্র এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘অভিনন্দন বরিস জনসন, আপনার দুর্দান্ত সাফল্যের জন্য। আমি আমাদের দুই দেশের মধ্যে বন্ধুত্ব এবং দৃঢ় সহযোগিতার জন্য আপনার সাথে কাজ করার অপেক্ষায় রয়েছি।

ইসরাইলের উচ্ছ্বাস
এ দিকে ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরাইল কাটজু বলেছেন, জনসনের নির্বাচনে বিজয় ইহুদিবাদবিরোধীদের ওপর একটি ‘মূল্যবোধের বিজয়’। ব্রিটেনের বিরোধী দল লেবার পার্টির বিরুদ্ধে ইসরাইল অভিযোগ এনেছে যে, ইহুদিদের বিরুদ্ধে কুসংস্কারকে করবিনের মদদেই উসকে দেয়া হয়েছিল।

মোদির শুভেচ্ছা
বরিস জনসনকে আরো অভিনন্দন জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গতকাল শুক্রবার এমন তথ্যই জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। জনসনকে অভিনন্দন জানিয়ে দেয়া টুইটার বার্তায় মোদি বলেন, সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন পেয়ে জয় লাভ করায় বরিস জনসনকে অভিনন্দন। আমি তার সফলতা কামনা করছি।

এ ছাড়া স্কটল্যান্ডের বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা তোরা কনজারভেটিভদের জয়ে অভিনন্দন জানিয়ে এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘বন্ধুদের অভিনন্দন এই দুর্দান্ত ফলাফলের জন্য যা স্কটিশ জনগণের ইউরোপীয় প্রতিশ্রুতি এবং স্বাধীনতার জন্য গণতান্ত্রিক ইচ্ছাকে অনুপ্রাণিত করবে।’ রয়টার্স।


আরো সংবাদ