১৭ আগস্ট ২০১৯

কুরবানির হাটে এস-৪০০, ওজন দেড় হাজার কেজি

-

সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত সমরাস্ত্র এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা। রাশিয়ার কাছ থেকে সম্প্রতি এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাটি কিনেছে তুরস্ক। যুক্তরাষ্ট্রের বিরোধীতা সত্ত্বেও রজব তাইয়েব এরদোগানের সরকার পিছপা হয়নি। যে কারণে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্রটি বিশ্ব জুড়েই ব্যাপক আলোচিত।

রুশ সংবাদমাধ্যম স্পুটনিক নিউজ জানিয়েছে, এবার তুরস্কের এক খামারি কুরবানির পশুর জন্য প্রস্তুতকৃত তার একটি ষাড়ের নাম রেখেছেন এস-৪০০। আলোচিত ক্ষেপণাস্ত্রের নামের সাথে মিল রেখে ষাড়ের নামকরণের কারণে ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়েছে ষাড়টি। যেটির ওজন প্রায় দেড় হাজার কেজি।

সমগ্র মুসলিম বিশ্বই প্রস্তুতি নিচ্ছে কুরবানির ঈদের। পশু কোরবানি এই ঈদের প্রধান কাজ। অন্যান্য দেশের মতো তুরস্কেও জমে উঠেছে কুরবানির পশুর হাট। দেশটির তেমনি এক পশুরু হাটে আলোড়ন তুলেছে একটি ষাড় যেটির নাম রাখা হয়েছে এস-৪০০।

ঈদুল আজহার আগেই অন্যান্য মুসলিম দেশের মতোই তুরস্ক জুড়ে ছোট-বড় পশু কেনার হিড়িক পড়েছে। আর সাইফি ও ইব্রাহীম কেভান নামের দুই ভাই তুরস্কের উত্তরাঞ্চলীয় কোরাম প্রদেশে গবাদি পশু পালনের ব্যবসা করেন। এবার দেড় হাজার কেজি ওজনের এই ষাড়টি বাজারে উঠিয়েছে তারা। বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার প্রতি সংহতি দেখিয়ে যেটির নাম দেয়া হয়েছে এস-৪০০।

ইব্রাহীম বলেন, প্রতিবছর ঈদ উৎসবের জন্য তারা গবাদিপশু পালন করেন। এবার তারা এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার প্রতি সম্মান জানিয়ে ষাড়টির এই নাম দিয়েছেন। এস-৪০০ এর অদম্য শক্তির কারণেই ষাড়টিকে এমন নাম দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, তিন বছর বয়সী এস-৪০০ ষাড়টিকে সবসময় আমরা শিশুর মতো যত্ন নিতাম। এখন ষাড়টির ওজন প্রায় দেড় হাজার কেজি। মার্কিন চাপে মাথা নত না করে রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ক্রয় করেছেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান। এটা তার সাহস ও অদম্যতার পরিচয়। আমাদের ষাড়টিও অনমনীয়। সে খুবই সাহসী এবং কোনো কিছুকে ভয় করে না। যে কারণে তার নাম দিয়েছি এস-৪০০।

‘এমন একটি ষাড় পালন করে আমার গর্ব হচ্ছে,’ বললেন ইব্রাহীম। এস-৪০০ নামের ষাড়টি স্থানীয় বাজারে ১৭ হাজার তুর্কিশ লিরায় বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশী মুদ্রায় যা আড়াই লাখ টাকারও বেশি।


আরো সংবাদ




bedava internet