২২ আগস্ট ২০১৯

উইঘুর মুসলমানদের পরিস্থিতি দেখতে তুর্কি প্রতিনিধি দলকে চীনের আমন্ত্রণ

-

জিনজিয়াংয়ে উইঘুর মুসলমানদের পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে তুরস্কের একটি প্রতিনিধি দলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে চীন সরকার। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট দফতরের কমিউনিকেশন ডিরেক্টর ফারহেতিন আলতুন টুইটারে জানিয়েছে এই তথ্য। খরব দিয়েছে তুরস্কের ইংরেজী সংবদা মাধ্যম ডেইলি সাবাহ।

জিনজিয়াংয়ে উইঘুর মুসলমনাদের ওপর চীনা সরকারের দমনমূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের খবর প্রায়ই সংবাদ মাধ্যমে আসে। মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে তুরস্ক সব সময়ই এর বিরুদ্ধে স্বোচ্চার। তুস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান একাধিকবার এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারই প্রতিক্রিয়ায় হয়তো তুর্কি প্রতিনিধি দলকে জিনজিয়াংয়ের উইঘুর মুসলমানদের পরিস্থিতি দেখতে আমন্ত্রণ জানিয়েছে চীন।

এ মাসের শুরুতে চীন সফর করেছে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। সে সময় তিনি বৈঠক করেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সাথে। গত এক মাসে এটি দুই নেতার তৃতীয় সাক্ষাৎ। এরদোগানের সফরকালে দুই দেশের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

চীন ঠিক কিভাবে তুরস্কের প্রতিনিধি দলকে উইঘুর মুসলমানদের পরিস্থিতি দেখতে আমন্ত্রণ জানিয়েছে তার স্পষ্ট করেননি ফারহেতিন আলতুন।

চীনের পশ্চিমাঞ্চলীয় জিনজিয়াং প্রদেশের অধিকাংশ বাসিন্দা উইঘুর মুসলমান। তারা জাতিগত তুর্কি বংশোদ্ভূত। দেশটিতে মুসলমানদের জীবনযাত্রার ওপর ব্যাপক কঠোরতা আরো করেছে চীনের কমিউনিস্ট সরকার ধর্মীয় রীতিনীতি পালনেরও স্বাধীনতা নেই তাদের।  এরই মধ্যে খবর বেড়িয়েছে কয়েক লাখ ‍উইঘুর মুসলমানকে একটি ডিটেনশন ক্যাম্পে বন্দী করে রেখেছে চীন। চীনের দাবি তাদের সংশোধন করতেই এই ক্যাম্পে রাখা হয়েছে।


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet