১৫ অক্টোবর ২০১৯

মার্কিন নিষেধাজ্ঞার প্রতিশোধ নেবে তুরস্ক

রাশিয়া থেকে এস-৪০০ কেনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের আপত্তি - ফাইল ছবি

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসগলু বলেছেন, রাশিয়া থেকে এস-৪০০ কেনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে পাল্টা পদক্ষেপ নেবে তুরস্ক। শুক্রবার তুরস্কের এক টেলিভিশনে সম্প্রচারিত সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে কাভুসগলু বলেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি আমাদের ব্যাপারে কোনো নেতিবাচক পদক্ষেপ নেয়, তাহলে আমরা পাল্টা পদক্ষেপ নেবো। তিনি বলেন, আমরা এস-৪০০ ইস্যুতে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছি। পরিণতি যাই হোক, আমরা পিছু হটবো না।

তেমনি তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, রাশিয়ার তৈরি উন্নত প্রযুক্তির বিমান প্রতিরক্ষাব্যবস্থা এস-৪০০ কেনার জন্য মস্কোর সাথে করা চুক্তিটি একটি ‘সম্পন্ন চুক্তি’। এটি কেনার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে যে হুঁশিয়ারি দেয়া হয়েছে তা আবারো প্রত্যাখ্যান করেছেন তিনি।

বুধবার এ কে পার্টির সদস্যদের সাথে এক বৈঠকে এসব মন্তব্য করেন প্রসিডেন্ট এরদোগান। আগামী জুলাইয়ের মধ্যে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা তুরস্কের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে বৈঠকে আশা প্রকাশ করেন তিনি। এরদোগান বলেনে, ‘তুরস্ক এরই মধ্যে এস-৪০০ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা কিনে ফেলেছে। এটি একটি সম্পন্ন চুক্তি। আমি আশা করি আগামী মাসের মধ্যে এটি তুরস্কের কাছে হস্তান্তর করা হবে।’

এস-৪০০ কেনার ইস্যুতে ওয়াশিংটন ও আঙ্কারার মধ্যে কয়েক মাস ধরে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে আসছে যে এটি ন্যাটো জোটের নীতিবিরোধী পদক্ষেপ। তুরস্ক ন্যাটো জোটের অন্যতম সদস্য।

এর আগে মার্কিন সরকার রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা কেনার পরিকল্পনা বাতিল করার জন্য তুরস্ককে জুলাইর শেষ পর্যন্ত চূড়ান্ত সময়সীমা বেঁধে দিয়ে বলেছিল, এ সময়ের মধ্যে এটি বাতিল করতে ব্যর্থ হলে আঙ্কারাকে এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান দেবে না ওয়াশিংটন। রয়টার্স 


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum