২৪ জুলাই ২০১৯

অস্ত্র কেনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতার জবাবে যা বললো তুরস্ক

তুরস্ক
রাশিয়ার কাছ থেকে মিসাইল এস-৪০০ প্রযুক্তি কিনছে তুরস্ক। - ছবি : বিবিসি

রাশিয়ার কাছ থেকে বিমান বিধ্বংসী মিসাইল এস-৪০০ প্রযুক্তি কেনায় তুরস্ককে সতর্ক করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স, যে প্রযুক্তিকে মার্কিন জেট বিমানের জন্য হুমকি হিসাবে দেখছে দেশটি।

পেন্স বলেছেন, তুরস্ককে বেছে নিতে হবে যে, তারা কি গুরুত্বপূর্ণ ন্যাটো সদস্য হিসাবে থাকবে, নাকি এরকম দায়িত্বহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে যৌথ নিরাপত্তাকে ঝুঁকিতে ফেলবে।

তুরস্ক জবাব দিয়েছে যে, ওই উন্নততর প্রযুক্তি কেনার ব্যাপারে এর মধ্যেই চুক্তি হয়ে গেছে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র আর ইউরোপের সাথে সম্পর্কে তিক্ততা তৈরি হওয়ার পর রাশিয়ার সাথে ঘনিষ্ঠতা বাড়াচ্ছে আঙ্কারা।

২৯টি দেশ নিয়ে গঠিত ন্যাটো জোটের মধ্যে তুরস্ক দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সামরিক শক্তির অধিকারী, যে জোট গঠিত হয়েছিল সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নকে মোকাবিলা করার জন্য।

মাইক পেন্স জার্মানিরও সমালোচনা করেছেন যে, দেশটি তাদের প্রতিরক্ষায় পর্যাপ্ত অর্থ খরচ করছে না।

তবে এসব কথার ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেনি মস্কো।

ইউক্রেনের ক্রাইমিয়া উপদ্বীপে রাশিয়ার দখল আর গুরুত্বপূর্ণ একটি মিসাইল চুক্তি থেকে রাশিয়ার সরে যাওয়ার পর থেকে রাশিয়া ও ন্যাটোর মধ্যে সম্পর্কের অনেক অবনতি হয়েছে।

মাইক পেন্স কী বলেছেন?
ন্যাটোর ৭০তম বর্ষপূর্তিতে মাইক পেন্স বলেছেন, ‘তুরস্ককে অবশ্যই বেছে নিতে হবে।’

‘তারা কি ইতিহাসের সবচেয়ে সফল সামরিক জোটের গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী হিসাবে থাকতে চায়, নাকি দায়িত্বহীন সিদ্ধান্ত নিয়ে সেই অংশীদারিত্বের সম্পর্ককে ঝুঁকিতে ফেলতে চায়, যা আমাদের জোটকে খাটো করবে?’

যুক্তরাষ্ট্র মনে করে, এস-৪০০ মিসাইল সিস্টেম মার্কিন এফ-৩৫ যুদ্ধবিমানগুলোর জন্য হুমকি হয়ে উঠতে পারে।

এর মধ্যেই ওয়াশিংটন তাদের এফ-৩৫ ফাইটার প্রোগ্রাম থেকে তুরস্ককে সাময়িক স্থগিত করেছে।

ওই প্রযুক্তির বদলে মার্কিন প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র কেনার জন্য চাপ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র।

ন্যাটোর জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা বলছেন, রাশিয়ার ওই মিসাইল প্রযুক্তি নেটোর অস্ত্রশস্ত্রের সাথে খাপ খায় না।

তুরস্কের জবাব কী?
তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুট কাভুসোগলূ বারবার বলেছেন যে, রাশিয়ার সাথে ওই চুক্তিটি বাতিল করা সম্ভব নয়।

পরে একটি টুইট বার্তায় তুরস্কের ভাইস প্রেসিডেন্ট লিখেছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রকে অবশ্যই বেছে নিতে হবে।’

‘তারা কি তুরস্কের বন্ধু হিসাবে থাকতে চায়, নাকি সন্ত্রাসীদের সাথে যোগ দিয়ে আমাদের বন্ধুত্বকে ঝুঁকিতে ফেলতে চায়, যারা শত্রুদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ন্যাটো সহযোগীদের প্রতিরক্ষাকে দুর্বল করে তুলতে চায়?’

আঙ্কারা বলছে, এস-৪০০ প্রযুক্তি দেশটির প্রতিরক্ষার জন্য সহায়ক হবে, যখন দেশটি কুর্দি বিদ্রোহী আর ইসলামপন্থী জঙ্গিদের হুমকিতে রয়েছে।

এস-৪০০ মিসাইল প্রযুক্তি কী?
এস-৪০০ প্রযুক্তি ‘ট্রিউমফ’ হলো বর্তমান বিশ্বে ভূমি থেকে আকাশে মিসাইল নিক্ষেপের সবচেয়ে উন্নততর প্রযুক্তি।

এটার আওতা হচ্ছে ৪০০ কিলোমিটার এলাকা। একটি এস-৪০০ প্রযুক্তি দিয়ে একনাগাড়ে ৮০টি লক্ষ্যে আঘাত করা যায়।

রাশিয়া জানিয়েছে, স্বল্প উচ্চতার ড্রোন থেকে শুরু করে যেকোনো উচ্চতায় বিমান এবং দূরপাল্লার মিসাইলে আঘাত হানতে সক্ষম এই প্রযুক্তি।

সূত্র : বিবিসি


আরো সংবাদ

ঢাবিতে ৭ কলেজ অধিভুক্তি বাতিল আন্দোলনে ইডেন ছাত্রলীগ নেত্রীরা! ডেঙ্গু পরিস্থিতি ভয়াবহ দ্বিগুণ ব্যয়ে মেট্রোরেল লাইন-৫ সুদ পরিশোধেই যাবে ২ হাজার ৮৯২ কোটি টাকা ভাঙন আতঙ্কে বন্যার্ত মানুষ ছেলেধরা সন্দেহে ৪ জনকে গণপিটুনি : গ্রেফতার ৬০ চকরিয়ায় ৩ দিন ধরে শিশু নিখোঁজ চরমে সামাজিক অস্থিরতা ত্রাণের জন্য বন্যার্তদের হাহাকার; ডেঙ্গু প্রতিরোধে ব্যর্থতা; শেয়ারবাজারে অশুভ খেলা; দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি সাধারণ মানুষের জীবন বিষিয়ে তুলছে মিন্নির জামিন নিয়ে আদেশ ৩০ জুলাই রিফাত হত্যা ঠাকুরগাঁওয়ে বজ্রপাতে ৪ জনের মৃত্যু ৩২ কোটি টাকা ভর্তুকি দিয়ে কাফকো থেকে ৭০ কোটি টাকার সার কিনছে সরকার ঋণখেলাপিদের বিশেষ সুযোগ প্রদান নিয়ে হাইকোর্টের রুল বরিস জনসনই নতুন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

সকল




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi