২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ওজিলের পাশে দাঁড়িয়েছে তুরস্ক, ওজিলের নামে রাস্তার নামকরণ

ওজিলের পাশে দাঁড়িয়েছে তুরস্ক, ওজিলের নামে রাস্তার নামকরণ - সংগৃহীত

ক্ষোভে-দুঃখে আন্তর্জাতিক ফুটবলকেই বিদায় জানানোর পর ওজিলের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে তুরস্ক। তুরস্কে ওজিলের নামে একটি রাস্তার নামকরণ করা হয়েছে। সেখানে এমনভাবে দুটি সাইনবোর্ড টানিয়েছে, যা ওজিলের প্রতি বর্ণবাদী আচরনের নীরব প্রতিবাদও বটে। তার বিদায় বলে দেয়া নিয়ে বিতর্কের ঢেউ জার্মানি ছেড়ে আছড়ে পড়েছে পুরো ফুটবল বিশ্বে। 

মেসুত ওজিলের বাবা মোস্তফা ওজিলের জন্মস্থান তুরস্ক। বাবার দেশ হিসেবে তুরস্কের প্রতি সব সময়ই একটা আলাদা টান রয়েছে মেসুত ওজিলের। তুরস্কে ওজিলদের বাড়িটাও রয়েছে এখনো।  কৃষ্ণ সাগরের তীরবর্তী উত্তর তুরস্কের জঙ্গুলডাক প্রদেশে দেবেরিক জেলায় অবস্থিত মেসুত ওজিলের বাবার বাড়ি। সেখানেই একটি রাস্তার নামকরণ করা হয়েছে মেসুত ওজিল স্ট্রিট নামে।

যে রাস্তাটি ওজিলের বাবার জন্মভিটার দিকে চলে গিয়েছে। সেই রাস্তায় আগেই বসানো হয়েছিল একটি বিলবোর্ড। যেখানে ছিল জার্মানি জাতীয় দলের জার্সি পরা ওজিলের একটি ছবি। এবার ওজিল যখন জার্মান জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন, সাথে সাথে তুরস্কের স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ওজিলের জার্সি পরা আগের ছবিটি নামিয়ে ফেলে। সেখানে ঠাঁই পেয়েছে এখন প্রেসিডেন্ট এরদোগানের হাতে ওজিলের জার্সি তুলে দেয়ার ছবিযুক্ত একটি বিলবোর্ড। আগের বিলবোর্ডটি নামিয়ে রাখা হয়েছে নিচে।

ওই শহরের মেয়র মোস্তফা সেমের্সি জানিয়েছেন, আগের ছবিযুক্ত বিলবোর্ডটি রাখার আর কোনো প্রয়োজন নেই। ওজিল এখন আর জার্মান জাতীয় দলের কেউ নন। তিনি তুর্কি। তুরস্ক প্রেসিডেন্টের সাথে তোলা ছবিটাই সেখানেই ঠাঁই পাবে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগানকে জার্সি উপহার দেয়ার ছবি প্রকাশ হওয়ার পরই বিতর্কের কেন্দ্রে উঠে এসেছিল মেসুত ওজিল আর ইলকায় গুন্ডোগানের নাম।  জার্মানি জুড়ে তৈরি হওয়া বিতর্কের প্রভাব পড়েছিল বিশ্বকাপেও। প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে। জার্মানির বিদায়ের পর একের পর এক সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হতে থাকেন তুর্কি বংশোদ্ভূত ফুটবলার মেসুত ওজিল।


আরো সংবাদ