২২ নভেম্বর ২০১৮

ম্যাচ চলল ৪ ঘণ্টা ২৩ মিনিট!

রাফায়েল নাদাল - সংগৃহীত

তৃতীয় রাউন্ডেই আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়াম সাক্ষী থাকল এপিক ম্যাচের। বিশ্বের ২৬ নম্বর কারেন কাচানভের বিরুদ্ধে লড়াই জিততে রাফায়েল নাদালের লাগল চার ঘণ্টা ২৩ মিনিট। বিশ্বের এক নম্বর নাদাল চার সেটের (৫-৭,৭-৫,৭-৬ (৯-৭),৭-৬(৭-৩) লড়াইয়ে জিতে ফ্লাশিং মেডোয় প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছান।

চলতি ইউএস ওপেনে এখন পর্যন্ত এটাই সবচেয়ে বেশি সময় ধরে চলা ম্যাচ। শুধু তাই নয়, ফ্লাশিং মেডোয় নাদালের এটি সবচেয়ে বেশি সময় ধরে চলা ম্যাচও।

প্রথম সেট হেরে টানা তিন সেট জিতে ম্যাচ পকেটে পুরেন নাদাল। শেষ দুটি সেট টাই-ব্রেকারে গড়ায়। দীর্ঘ লড়াই জিতে কোর্টেই উচ্ছ্বাস ধরা পড়ে নাদালের। একটা সময় মনে হয়েছিল তৃতীয় রাউন্ডেই থেমে যাবেন তিনি। কিন্তু অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ম্যাচ বের করে নেন স্প্যানিশ খেলোয়াড়।

নাদাল দ্বিতীয় সেটে টানা তিন গেম জেতার পর লড়াই অন্য মাত্র পায়। শেষ পর্যন্ত ৭-৫ দ্বিতীয় সেট জিতে ম্যাচে ফেরেন তিনি। তৃতীয় সেটে টাইব্রেকারে দু’জনের মধ্যে ৩৯ শটের ব়্যালি হয়।

তৃতীয় সেটের লড়াই সম্পর্কে নাদাল বলেন, ‘এই সেটটা আমার দরকার ছিল। এটাই ম্যাচের সবচেয় কঠিন মুহূর্ত। টাইব্রেকারে আমি দুর্দান্ত লড়েছি। কঠিন পরিস্থিতি পেরিয়ে জয় পেয়েছি। চতুর্থ সেটে আমি কয়েকটি সার্ভ মিস করি।’

২২ বছরের কাচানভের সামনে মৌসুমে তিনটি গ্র্যান্ড স্ল্যামের শেষ ষোলোয় ওঠার হাতছানি ছিল। তার জন্য দরকার ছিল স্প্যানিশ তারকাকে হারানো। শুরুটা ভালো করেও শেষটা হয়নি। নাদালের বিরুদ্ধে চারবারের সাক্ষাতে চারবাই হারলেন তরুণ রুশ খেলোয়াড়। ১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ীর বিরুদ্ধে প্রথম সেট জিতলেও শেষ হাসি হাসতে পারেননি কাচানভ।


আরো সংবাদ