২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ফেদেরারকে হারিয়ে শিরোপা জিতলেন জকোভিচ

নোভাক জকোভিচ - সংগৃহীত

অবশেষে দীর্ঘ প্রতিক্ষর পরে মাস্টার্স ১০০০’র শিরোপার দেখা পেয়েছেন নোভাক জকোভিচ। রোববার সিনসিনাতি মাস্টার্সের ফাইনালে জকোভিচ সাতবারের বিজয়ী রজার ফেদেরারকে ৬-৪, ৬-৪ গেমে সহজেই পরাজিত করে শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব দেখান।
বিশ্বের সাবেক এই নাম্বার ওয়ান তারকা প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ক্যারিয়ারে এটিপি মাস্টার্স ১০০০ ইভেন্টের সবকটি অর্থাৎ ৯টি শিরোপা দখলের রেকর্ড গড়লেন। অন্যদিকে ইউএস ওপেনের প্রস্তুতিমূলক এই মাস্টার্স ইভেন্টে প্রথমবারের মত ফাইনালে পরাজয়ের তিক্ত স্বাদ পেলেন ফেদেরার।

ম্যাচ শেষে জকোভিচ বলেছেন, ‘এখানে আমি এর আগে পাঁচটি ফাইনালে খেলেছি। আর বেশিরভাগ ফাইনালেই আমি রজারের কাছে পরাজিত হয়েছি। সিনসিনাতিতে অবশেষে আমাকে জয়ী হওয়ার সুযোগ দেয়ার জন্য রজারকে ধন্যবাদ। এটা আমার কাছে স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতই ঘটনা। ৬টি ফাইনাল শেষে অবশেষে আমি সিনসিনাতির শিরোপা জিতলাম। আর সেটা সেরা তারকা রজারের বিপক্ষে।’

এদিকে ২০বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী ফেদেরার বলেছেন তার পারফরমেন্স ততটা নিখুঁত ছিল না। তবে এজন্য তিনি জকোভিচের অর্জনকে খাটো করে দেখেননি। এ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘জকোভিচ একজন অসাধারণ চ্যাম্পিয়ন। এটা তাকে ইতিহাস গড়তে সহযোগিতা করেছে।’

প্রথম সেটে সপ্তম গেমে জকোভিচ ব্রেক পয়েন্ট তুলে নিয়ে সিনসিনাতিতে টানা ১০০টি গেমের পরে ফেদেরারকে পরাজয়ের স্বাদ দিয়েছেন। ফাইনালে অবতীর্ণ হয়ে ৩৭ বছর বয়সী সুইস তারকা ৯৯তম শিরোপা জয়ের পথে ছিলেন। কিন্তু ম্যাচের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে চারটি ডাবল ফল্ট করে ম্যাচ হাতছাড়া করেন ফেদেরার। যদিও ফিরতি গেমেও দূর্বলতা ছিল বলে স্বীকার করেছেন ফেদেরার।

এ সম্পর্কে তিনি বলেন, ফিরতি গেমগুলোতে আজ আমি সেরাটা দিতে পারিনি, যা কখনই কাম্য নয়। ফোরহ্যান্ডে প্রতিটি দ্বিতীয় সার্ভিসই আমি মিস করেছি। আমি জানি না আজ কেন এমন হলো। যদিও আমি এর পিছনে কোন কারন উল্লেখ করছি না। আজকের জয়টা সম্পূর্ণভাবেই নোভাকের প্রাপ্য ছিল। এখন আমার কিছুদিনের বিশ্রামের প্রয়োজন।

ইউএস ওপেন শুরু হতে আর মাত্র আট দিন বাকি। এ সময়টা নিজেকে প্রস্তুত করে আবারো লড়াইয়ে ফিরে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ফেদেরার।


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme