২৪ মার্চ ২০১৯

হানিফ সংকেতের ইত্যাদি

-

প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদ আনন্দের সাথে দর্শকদের জন্য বাড়তি আনন্দ নিয়ে আসছে হানিফ সংকেতের ইত্যাদি। ঈদের সাথে ইত্যাদি যেন ঐতিহ্যে পরিণত হয়েছে। দর্শকেরাও ঈদের সময় অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেন ইত্যাদি দেখার জন্য। কোনো নির্দিষ্ট বয়স বা শ্রেণীর জন্য নয়- সব বয়সী, সব শ্রেণি-পেশার মানুষের জন্যই ইত্যাদি। নিয়মিত ইত্যাদি ঢাকার বাইরে বিভিন্ন ঐতিহাসিক ও প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনসমৃদ্ধ স্থানে ধারণ করা হলেও ঈদের ইত্যাদি ধারণ করা হয় ঢাকায়। কারণ বর্ষাকালে উন্মুক্ত স্থানে দর্শক নিয়ে অনুষ্ঠান করা যেমন ঝুঁকিপূর্ণ, তেমনি ঈদ আয়োজনের চার-পাঁচ শ’ অংশগ্রহণকারীকেও ঢাকার বাইরে নিয়ে যাওয়া অসম্ভব।

তাই এবারেও ঈদের ইত্যাদি ধারণ করা হয়েছে মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে। ইনডোর স্টেডিয়ামের প্রায় তিন ভাগের এক ভাগ স্থানজুড়ে নির্মাণ করা হয়েছিল নান্দনিক সেট। বর্ণাঢ্য এই আয়োজনে পুরো অনুষ্ঠানটিতে এক উৎসবের আমেজ তৈরি হয়েছিল। বরাবরের মতো এবারো ইত্যাদি শুরু করা হয়েছে- ‘ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশীর ঈদ’- এই গানটি দিয়ে। নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের অংশগ্রহণের ধারাবাহিকতায় এবারের গানটি পরিবেশন করবেন কয়েক হাজার শ্রমজীবী মানুষ ও ইনডোর স্টেডিয়ামে আগত কয়েক হাজার দর্শক। এবারের ঈদ ইত্যাদিতে একটি বিষয়ভিত্তিক গান গেয়েছেন নন্দিত শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন ও এ্যান্ড্রু কিশোর। সাম্প্রতিক সময়ে দেশে উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়া সড়ক দুর্ঘটনা ও আমাদের সচেতনতা নিয়ে গানটির কথা লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, সঙ্গীতায়োজন করেছেন ফরিদ আহমেদ।

গানটির চিত্রায়নে সাবিনা ইয়াসমিন ও এ্যান্ড্রু কিশোরের সঙ্গে অংশ নিয়েছে শতাধিক নৃত্যশিল্পী। ইত্যাদির নাচ মানেই বাড়তি আয়োজন, বাড়তি আকর্ষণ এবং ভিন্নমাত্রা। ইত্যাদিই একমাত্র অনুষ্ঠান যেখানে নাচের প্রচলিত ধারার বাইরে বিষয়ভিত্তিক নাচ করা হয়। এবারের নাচটিতেও রয়েছে ব্যাপক আয়োজন এবং সমসাময়িক বিষয়। নাচটি পরিবেশন করবেন দেশের খ্যাতিমান নৃত্যজুটি শিবলী মোহাম্মদ ও শামীম আরা নিপা। তাদের সঙ্গে ছিলেন শতাধিক নৃত্য ও অভিনয়শিল্পী।এবারের ঈদ ইত্যাদিতে ছন্দে-সুরে ব্যতিক্রমী একটি আলোচনায় অংশ নিয়েছেন অভিনয় তারকা শহীদুজ্জামান সেলিম, মীর সাব্বির, সাজু খাদেম ও শাহরিয়ার নাজিম জয়। এবারের ঈদ ইত্যাদির নানান চমকের একটি হচ্ছে এই প্রজন্মের অত্যন্ত জনপ্রিয় চারজন তারকাকে নিয়ে একটি বিষয়ভিত্তিক বিশেষ গান। আর নাচেগানে এই পর্বটিতে প্রাণবন্ত অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ফেরদৌস, অভিনেতা অপূর্ব, জনপ্রিয় অভিনেত্রী মম ও দীর্ঘ দিন পর আমেরিকা প্রবাসী মোনালিসা। তাদের সাথেও নৃত্যে অংশগ্রহণ করেছেন অর্ধশতাধিক নৃত্যশিল্পী।

ঈদ ইত্যাদির নানান চমকের একটি হচ্ছে বিশেষ মিউজিক্যাল ড্রামা। এবারের মিউজিক্যাল ড্রামায় অভিনয় করেছেন অভিনয় তারকা ঈমন ও কুসুম শিকদার এবং অন্যটিতে অভিনয় করেছেন এই প্রজন্মের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী প্রতিক হাসান ও কণা। সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন নাভেদ পারভেজ। শুধু প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে অনুষ্ঠান ধারণই নয়- প্রায় দুই যুগ ধরে ইত্যাদিতে বিদেশী নাগরিকদের দিয়েও আমাদের লোকজ সংস্কৃতি, বিভিন্ন গ্রামীণ খেলাধুলা, ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে নিয়মিতভাবে তুলে ধরা হচ্ছে। এর ফলে বিদেশীদের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে আমাদের সংস্কৃতি। বিদেশীদের নিয়ে এবারও রয়েছে তেমনি একটি ব্যতিক্রমী আয়োজন। এই পর্বে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের অর্ধ শতাধিক বিদেশী নাগরিক অংশ নিয়েছেন। এবারের বিষয় ‘পারিবারিক শান্তি’।

প্রতিবারের মতো এবারেও ছোট পর্দার বড় আকর্ষণ থাকবে ইত্যাদি। ইত্যাদি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন, স্পন্সর করেছে কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড। ইত্যাদি একযোগে প্রচার হবে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে ঈদের পরদিন রাত ১০টা ২০ মিনিটে এবং ইত্যাদি পুনঃপ্রচার করা হবে ঈদের চতুর্থ দিন রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর।


আরো সংবাদ




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al