১৮ আগস্ট ২০১৯

বিজ্ঞান অধ্যায় ছয় : সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য সপ্তম অধ্যায় : স্বাস্থ্যবিধি

-

সুপ্রিয় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীর শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের বিজ্ঞান বিষয়ের ‘অধ্যায় ছয় : সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য’ থেকে আরো ৮টি শূন্যস্থান পূরণ করো এবং ‘সপ্তম অধ্যায় : স্বাস্থ্যবিধি’ থেকে ৪টি সংক্ষিপ্ত উত্তর প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা করা হলো।
অধ্যায় ছয় : সুস্থ জীবনের জন্য খাদ্য
শূন্যস্থান পূরণ করো
৩৪. কৃত্রিম রঙ ও রাসায়নিক ব্যবহারের ফলে মানুষের শরীরের নানা রকম--- হয়।
উত্তর : কৃত্রিম রঙ ও রাসায়নিক ব্যবহারের ফলে মানুষের শরীরের নানা রকম ক্ষতি হয়।
৩৫. জাঙ্কফুড হচ্ছে এক ধরনের--- খাদ্য।
উত্তর : জাঙ্কফুড হচ্ছে এক ধরনের কৃত্রিম খাদ্য।
৩৬. কোমল পানীয়-লেমন ও সোডা ইত্যাদি হলো--- খাদ্য।
উত্তর : কোমল পানীয়-লেমন ও সোডা ইত্যাদি হলো জাঙ্ক খাদ্য।
৩৭. জাঙ্কফুড স্বাস্থ্যের জন্য---।
উত্তর : জাঙ্কফুড স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।
৩৮. জাঙ্কফুডে--- পরিমাণ বেশি থাকে।
উত্তর : জাঙ্কফুডে তেলের পরিমাণ বেশি থাকে।
৩৯. খাদ্য পরিপাকের জন্য--- একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান।
উত্তর : খাদ্য পরিপাকের জন্য পানি একটি অতি প্রয়োজনীয় উপাদান।
৪০. পানি কম পান করলে--- রোগ হয়।
উত্তর : পানি কম পান করলে কোষ্ঠকাঠিন্য রোগ হয়।
৪১. সব রকম খাবার সমান--- নয়।
উত্তর : সব রকম খবার সমান পুষ্টিকর নয়।
সপ্তম অধ্যায় : স্বাস্থ্যবিধি
সংক্ষিপ্ত উত্তর প্রশ্ন
প্রশ্ন : কিভাবে সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ করা যায় তার পাঁচটি উপায় লিখ।
উত্তর : নি¤œলিখিত উপায়ে সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ করা যায়Ñ ক. নিরাপদ পানি ব্যবহার করা ।
খ. হাত জীবাণুমুক্ত রাখা।
গ. সুষম খাদ্য গ্রহণ করা।
ঘ. চার পাশের পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা।
ঙ. হাঁচি-কাশির সময় টিস্যু, রুমাল বা হাত দিয়ে মুখ ঢাকা।
প্রশ্ন : বায়ুবাহিত রোগ কী?
উত্তর : যেসব রোগ হাঁচি-কাশি বা কথাবার্তা বলার সময় বায়ুতে জীবাণু ছড়ানোর মাধ্যমে হয়ে থাকে, সেসব রোগকে বায়ুবাহিত রোগ বলে। সোয়াইন ফ্লু, ইনফ্লুয়েঞ্জা, হাম, গুটিবসন্ত, যক্ষ্মা ইত্যাদি বায়ুবাহিত রোগ।
প্রশ্ন : সংক্রামক রোগ প্রতিকারের উপায়গুলো কী?
উত্তর : সংক্রামক রোগ প্রতিকারের উপায়গুলো হলোÑ
ক. রোগাক্রান্ত হলে পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে।
খ. পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে।
গ. নিরাপদ পানি পান করতে হবে।
প্রশ্ন : সংক্রামক রোগের কারণ কী কী?
উত্তর : সংক্রামক রোগের কারণগুলো নি¤œরূপÑ
ক. মশার মাধ্যমে সংক্রমিত হতে পারে।
খ. সংক্রমিত ব্যক্তির হাঁচির মাধ্যমে সংক্রমিত হতে পারে।
গ. সংক্রমিত ব্যক্তির ব্যবহৃত জিনিসপত্র যেমনÑ গ্লাস, প্লেট ইত্যাদি ব্যবহারের মাধ্যমে সংক্রমিত হতে পারে।

 


আরো সংবাদ




bedava internet