১৫ নভেম্বর ২০১৯

২০১৯ সালে ঢাকা মহানগরীর শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান প্রধান (কলেজ) অধ্যক্ষ এম এ কালাম

-

আলোকিত মানুষ গড়ার কারিগর হলেন শিক্ষকেরা। সমাজে শিক্ষকমাত্রই বিশেষ মর্যাদার অধিকারী; সম্মান ও শ্রদ্ধার পাত্র। সমাজের জ্ঞানী ব্যক্তিদের মধ্যে শিক্ষক অন্যতম। এ বছর শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসেবে এই সম্মান অর্জন করেন ঢাকা মহানগরীর ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় বিশেষায়িত গুলশান কমার্স কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ এম এ কালাম। তিনি ঢাকা মহানগরীর শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা, ঢাকা অঞ্চল পরিচালিত প্রতিযোগিতায় তিনি এই শ্রেষ্ঠত্ব পান।
এম এ কালাম ঢাকার গুলশান-বাড্ডা লিংক রোডে অবস্থিত গুলশান কমার্স কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ। ২০০৪ সালে তার হাত ধরেই এই কলেজের যাত্রা শুরু। কলেজটি উচ্চ মাধ্যমিক এবং স্নাতক পর্যায়ে ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় পাঠদান করে আসছে। এরই মধ্যে কলেজটি পাঠদান কৌশল, ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা, অর্জিত ফলাফল ও সহশিক্ষা কার্যক্রমে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে। ২০১৯ সাল থেকে কলেজটি নিজস্ব ভবনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিবিএস স্নাতক পর্যায়ে পাঠদান কার্যক্রমের স্বীকৃতি অর্জন করে। কলেজটি এম এ কালাম শিক্ষা উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের অধীনে পরিচালিত একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অধ্যক্ষ এম এ কালাম ১৯৯৩ সালে কমার্স প্রকাশনী প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ব্যবসায় শিক্ষা শাখার বিভিন্ন বই প্রকাশের মাধ্যমে এ দেশের উচ্চশিক্ষার (ব্যবসায় শাখায়) মানকে উন্নীতকরণে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন। খিলগাঁও মডেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে তার শিক্ষকতা জীবন শুরু। অধ্যক্ষ এম এ কালাম এই স্বীকৃতি পাওয়াকে কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শুভাকাক্সক্ষী ও শুভানুধ্যায়ীদের অর্জন বলে মনে করেন। পাশাপাশি ব্যবসায় শিক্ষার প্রসার এবং আরো যুগোপযোগী করার ক্ষেত্রে এই অর্জন তাকে অনুপ্রেরণা জোগাবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন।

 


আরো সংবাদ

আগুন নেভাতে সাহসী ভূমিকা রাখা ১৬ ব্যক্তিকে সংবর্ধনা দিলো হোটেল কস্তুরি ঘুষ সন্ত্রাস মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে বাংলাদেশ-নেপাল যোগাযোগ ও বাণিজ্য বাড়ানোর পরামর্শ রাষ্ট্রপতির মেহেদির রঙ মুছতে না মুছতেই... সর্বদা আল্লাহর জিকিরে থাকতে হবে : আল্লামা শফী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত খারাপ, তাকে জামিনে মুক্তি দিন রোহিঙ্গা নিপীড়নের অভিযোগ তদন্তের আদেশ দিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত ৩০ বছর পর সগিরা হত্যার রহস্য উদঘাটন : চার আসামি গ্রেফতার ট্রেন দুর্ঘটনার পেছনে কোনো ষড়যন্ত্র থাকলে সরকার খতিয়ে দেখবে : প্রধানমন্ত্রী অর্থমন্ত্রীর পরিবারের আয়কর ৭ কোটি ৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকা না’গঞ্জে আদালত চত্বরে বাদি ও আসামিপক্ষের মারামারি

সকল