১৬ অক্টোবর ২০১৯

দা তুলতে গিয়ে নদীতে ডুবে গেল ১০ম শ্রেণীর ছাত্র

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ধলাই নদীতে ডুবে এক স্কুল ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে। তিনি পানি থেতে দা তুলতে গিয়ে ডুবে যায়। ভান্ডারীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণীর ছাত্র । লাশ উদ্ধারের জন্য সিলেট থেকে ডুবুরি দলকে তলব করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে মাধবপুর ইউনিয়নের দলই চা বাগানের সংলগ্ন ধলাই নদীতে।

জানা যায়, লক্ষী নারায়ন ও তার ছোট ভাই উজ্জল মাদ্রাজী শুক্রবার দুপুরে ধলাই নদের প্রতিরক্ষা বাঁধ এলাকা থেকে ঘাস কাটছিল। ঘাস কাটার সময় বেলা দেড়টার দিকে লক্ষী নারায়ণের হাত থেকে দা ধলাই নদীতে পড়ে যায়। তখন দা খুঁজতে নদে নামে এবং ক্রমে পানির নিচে তলিয়ে যায়। এ সময় নিখোঁজ লক্ষী নারায়ন বড় ভাই এর সাহায্য চাইলে উজ্জল মাদ্রাজী ভাইকে রক্ষা করতে পারেনি।

তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এসে নদীতে নেমে সন্ধান করলেও পাননি। উদ্ধার করতে না পেরে বিষয়টি কমলগঞ্জ উপজেলা ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স বাহিনীকে অবহিত করা হয়। খবর পেয়ে বেলা আড়াইটায় কমলগঞ্জ উপজেলা ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। তারা উদ্ধারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে সিলেট ডুবুরি দলকে তলব করা হয়েছে। রাত ৮টা পর্যন্ত ডুবুরি দলের জন্য অপেক্ষা করলেও আলো না থাকায় হয়তো ভোরে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হবে বলে কমলগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।

মাধবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পুস্প কুমার কানু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লক্ষী নারায়ণের বাড়ি শমশেরনগর চা-বাগানের বড় লাইন শ্রমিক বস্তিতে। তবে সে ধলই চা-বাগানে মামা সত্য নারায়ণ মাস্টারের বাড়িতে থেকে লেখাপড়া করছিল।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum